সৌদি আরবের কারাবন্দি প্রখ্যাত আলেম আহমেদ আল-আমরি বিষ প্রয়োগের ফলে মারা গেছেন। বিষ প্রয়োগের ফলে আহমেদ আল-আমরির মস্তিষ্কের তৎপরতা পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় এবং দেশটির বন্দর নগরী জেদ্দার একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি।

মদিনা ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ডিন আল-আমারি গত রোববার শেষ বেলায় মারা যান বলে জানিয়েছে লন্ডন-ভিত্তিক সৌদি বিরোধী গোষ্ঠী আল-কাশত এবং আল-আমরির স্বজনরা।

গত আগস্টে সৌদি নিরাপত্তা বাহিনী বাসভবনে অভিযান চালিয়ে আল-আমারিকে আটক করে। পরে নিঃসঙ্গ কারাকক্ষে তাকে আটক রাখা হয়। কারাগারে আটক থাকার সময়ে তার ওপর নির্যাতন চালানো হয়। নির্যাতনের এক পর্যায়ে ইনজেকশনের মাধ্যমে তার শরীরে বিষ ঢোকানো হলে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের শিকার হন তিনি। প্রিজনার অব কনসেন্সাস নামের সৌদি একটি মানবাধিকার গোষ্ঠীর টুইটে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

সৌদি আরবের অন্যতম খ্যাতনামা আলেম সাফার আল-হাওয়ালি সৌদি রাজপরিবারের সমালোচনা করে একটি বই প্রকাশের দায়ে গত জুলাই মাসে আটক হন। আল-আমারিসহ কয়েকজন আলেমের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা ছিল বলে ধারণা করা হয়।

গত কয়েক বছর ধরে রিয়াদ সন্ত্রাস-বিরোধী আইনের অপপ্রয়োগ করছে। দেশটির মানবাধিকার কর্মী এবং স্পষ্টভাষী আলেমদের এ আইনের আওতায় নির্বিচারে আটক করা হচ্ছে।

২০১৬ সালে সৌদি কর্তৃপক্ষ দেশটির খ্যাতনামা শিয়া মুসলমান আলেম শেখ নিমার বাকির আল-নিমার প্রাণদণ্ড কার্যকর করে। নির্ভীক এই আলেম খোলামেলা ভাবেই রিয়াদের নীতি এবং অপতৎপরতার সমালোচনা করতেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here