বিয়ে ভেঙেছে ২০১৬ সালে। এটা ২০১৯। কিন্তু, এখনও মালাইকা আরোরাকে জীবন থেকে পুরোপুরি আলাদা করতে পারেননি আরবাজ় খান। অন্তত এই খবরে সেই ইঙ্গিতই পাওয়া যাচ্ছে। মালাইকার ড্রাইভারের কাছ থেকে তাঁর ব্যক্তিগত জীবনের খবর নেন আরবাজ়। সম্প্রতি মালাইকা প্রমাণ পেয়েছেন এই ঘটনার। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যাচ্ছে এই খবর।

মালাইকার গাড়িচালক বেশ পুরোনো। আরবাজ়ের স্ত্রী থাকার সময়ই তাঁকে গাড়ি চালানোর কাজে নিযুক্ত করেন স্বয়ং আরবাজ়। মুকেশ নামের সেই চালকের সঙ্গে নিযুক্ত করা হয় তাঁর ভাই বাবলুকেও। মুকেশ ছিলেন মালাইকার গাড়ির দায়িত্বে ও বাবলু ছিলেন আরবাজ়ের গাড়ি চালানোর দায়িত্বে। মালাইকা ও আরবাজ়ের ডিভোর্সের পরও মুকেশ ও বাবলু একইভাবে নিজেদের দায়িত্বে বহাল আছেন।

শোনা যাচ্ছে, মালাইকার ব্যক্তিগত জীবনের সমস্ত খবর ভাই বাবলুকে জানাতেন মুকেশ এবং বাবলুর থেকে সব খবর পেতেন আরবাজ়। সম্প্রতি মালাইকা প্রমাণ পেয়েছেন এই ঘটনার। আর তারপর মুকেশের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন তিনি। এই ঘটনা যেন আর বা ঘটে তার জন্য মালাইকা কড়া নির্দেশ দিয়েছেন মুকেশকে।

মালাইকা আর অর্জুন কাপুরের সম্পর্ক নিয়ে যে মোটেই খুশি নন খান পরিবার, সেই খবর আগেই পাওয়া গেছে। সলমান খান তো বনি কাপুর ও অর্জুন কাপুরকে নিজের বাড়িতেও ঢুকতে দেবেন না বলে শোনা গেছিল। এই সম্পর্ক নিয়ে গোল বেঁধেছে কাপুর পরিবারেও। অর্জুনের বাবা বনি কাপুর, বোন অংশুলা কাপুর, এমনকি সোনম কাপুরও ঠিক ভাবে নিতে পারেননি এই সম্পর্কটাকে। আর এবার সামনে এল এই অপ্রত্যাশিত খবর। তাহলে কি এখনও আরবাজ় আর মালাইকা সম্পূর্ণ বেরোতে পারেননি একে অপরের থেকে? প্রশ্ন উঠছে বলিউডের বিভিন্ন মহলে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here