সপ্তম স্প্যান বসানোর সঙ্গে সঙ্গেই পদ্মা সেতু দৃশ্যত কিলোমিটারে রুপ নিল।  বুধবার (২৩ জানুয়ারি) সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে ৩৬ ও ৬৭ নম্বর পিলারের ওপর স্প্যানটি বসানো হয়। এর ফলে সেতুর ১ হাজার ৫০ মিটার দৃশ্যমান হলো।

শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ৩৬ ও ৬৭ নম্বর পিলারের ওপর এই স্প্যানটি বসানো হয়েছে। মাওয়ার কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে সপ্তম স্প্যানটি প্রস্তুত করে রাখা হয়েছিল। মঙ্গলবার কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে জাজিরার নাওডোবা প্রান্তে আনা হয় এটি। বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় শুরু হয়ে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে স্প্যানটি বসানো শেষ হয় বলে নিশ্চিত করেন প্রকল্পটির উপসহকারী প্রকৌশলী হুমায়ূন কবির।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর প্রথম স্প্যান, ২০১৮ সালের ২৮ জানুয়ারি ৩৮ ও ৩৯ নম্বর পিলারের ওপর দ্বিতীয় স্প্যান, ১১ মার্চ ৩৯ ও ৪০ নম্বর পিলারের ওপর তৃতীয় স্প্যান, ১৩ মে ৪০ ও ৪১ নম্বর পিলারের ওপর চতুর্থ স্প্যান ও সবশেষ গত ২৯ জুন ৪১ ও ৪২ নম্বর পিলারের ওপর পঞ্চম স্প্যান বসানো হয়। এছাড়া মাওয়া প্রান্তে ষষ্ঠ স্প্যান বসানো হয়। পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২টি। একটি থেকে আরেকটি পিলারের দূরত্ব ১৫০ মিটার।

সার্বিকভাবে পদ্মা সেতুর ৬৩ শতাংশ কাজ এবং মূল সেতুর ৭৩ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সেতুর মোট ২৬১টি পাইলের মধ্যে ১৯১টির কাজ সম্পন্ন এবং আরও ১৫টি পাইলের আংশিক কাজ শেষ হয়েছে বলে সম্প্রতি এক মতবিনিময় সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here