মার্কিন সরকার বিশ্ব জনমতের চাপে ইরানের প্রেস টিভি’র সাংবাদিক ও উপস্থাপক মারজিয়া হাশেমি’কে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা আইআরআইবি’র বিশ্ব কার্যক্রম ও প্রেস টিভির প্রধান ড. পেইমান জেবেলি।

একইসঙ্গে তিনি মারজিয়া’র মুক্তিতে বিশ্বের সব গণমাধ্যম কর্মীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

মারজিয়া হাশেমি বিনা বিচারে ১০ দিন কারাভোগের পর বুধবার আমেরিকার কারাগার থেকে মুক্তি পান। তার আটকের প্রতিবাদে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যাপক প্রতিবাদ বিক্ষোভ হওয়ার পর তাকে মুক্তি দেয়া হলো।

তার মুক্তি উপলক্ষে এক প্রতিক্রিয়ায় ড. জেবেলি আরো বলেন, মারজিয়া’র মুক্তি প্রমাণ করেছে, আমেরিকার কারাগারগুলোতে অন্যায়ভাবে আটক মানুষগুলোর মুক্তির জন্য সেদেশে ব্যাপক গণআন্দোলন প্রয়োজন।

তিনি বলেন, মারজিয়া হাশেমি’র মুক্তি ইরানের প্রেস টিভি ও আরবি ভাষার নিউজ চ্যানেল আল-আলম’সহ বিশ্বের সকল স্বাধীনচেতা গণমাধ্যমের জন্য বড় ধরনের বিজয়।

আমেরিকায় জন্মগ্রহণকারী ৫৯ বছর বয়সি সাংবাদিক মারজিয়া হাশেমি তরুণ বয়সে ইসলাম গ্রহণ করেন। তিনি একজন ইরানি নাগরিকের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে গত কয়েক দশক ধরে ইরানে বসবাস করছিলেন।

গত ১৩ জানুয়ারি আমেরিকার সেন্ট লুইস ল্যাম্বার্ট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে আটক করা হয়। তিনি নিজের অসুস্থ ভাই ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে আমেরিকা সফরে যান।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here