মার্কিন সরকার ভেনিজুয়েলার রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি পিডিভিএসএ’র বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পাশাপাশি শান্তিপূর্ণ উপায়ে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার কাজে সহযোগিতা করার জন্য দেশটির সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিফেন নুচিন ওয়াশিংটনে এক সংবাদ সম্মেলনে নিষেধাজ্ঞা আরোপের এই ঘোষণা দিয়ে তার ভাষায় বলেছেন, “ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো এবং তার মিত্ররা এখন থেকে আর দেশটির জনগণের সম্পদ হরণ করতে পারবে না।” এ সময় যুদ্ধবাজ মার্কিন মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন অর্থমন্ত্রীর পাশে ছিলেন।

সম্প্রতি ভেনিজুয়েলায় মাদুরোবিরোধী বিক্ষোভ তুঙ্গে ওঠার পর গত বুধবার নিজেকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন ৩৫ বছর বয়সী বিরোধী নেতা হুয়ান গাইডো। সঙ্গে সঙ্গে তাকে স্বীকৃতি দেয় যুক্তরাষ্ট্র,কানাডা ও দক্ষিণ আমেরিকার কিছু দেশ। এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে রাশিয়া, চীন, ইরান ও তুরস্ক সহ আরো কিছু দেশ।

ভেনিজুয়েলার তেল কোম্পানির বিরুদ্ধে আমেরিকার আরোপিত নিষেধাজ্ঞাকে এ যাবতকালের মধ্যে সবচেয়ে কঠিন নিষেধাজ্ঞা বলে মনে করা হচ্ছে। ভেনিজুয়েলার বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের প্রধান উৎস হচ্ছে এই রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি। তেলখাতে ভেনিজুয়েলার ‘আয়ের অর্থের অপচয় রোধ করা’র কথিত লক্ষ্যে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে মার্কিন সরকার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here