অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২০ সালের সূচি প্রকাশ করেছে আইসিসি। যেখানে প্রথমবারের মতো একই বছর আলাদাভাবে নারী ও পুরুষ আসর অনুষ্ঠিত হবে। তবে পুরুষদের ‘সুপার ১২’র মূল টুর্নামেন্টে খেলতে হলে আসরের বাছাইপর্বে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করেই আসতে হবে বাংলাদেশকে।

পুরুষদের টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ ৮ দলসহ মোট ১৬ দলের টুর্নামেন্টটি শুরু হবে ২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর। আর ১৫ নভেম্বর ফাইনালের মধ্যদিয়ে ঐতিহাসিক মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে পর্দা নামবে আসরটির। তবে ২৪ অক্টোবর সিডনিতে বর্তমান টি-২০’র শীর্ষ দেশ পাকিস্তানের বিপক্ষে সুপার ১২’র প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।

১৬ দলের মোট ৪৫টি ম্যাচ সাতটি ভেন্যুতে খেলা হবে। ভেন্যুগুলো হলো, মেলবোর্ন, সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, পার্থ স্টেডিয়াম, অ্যাডিলেড ওভাল, দ্য গ্যাবা, বেলেরিভ ওভাল ও কারডিনিয়া পার্ক।

সুপার ১২’র গ্রুপ ‘ওয়ানে’ রয়েছে, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাছাই থেকে উঠে আসা দুটি দল। আর গ্রুপ ‘টু’তে রয়েছে, ভারত, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, আফগানিস্তান ও বাছাই থেকে উঠে আসা দুটি দল।

আইসিসির শীর্ষ দেশগুলোর মধ্যে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ টি-২০ র‌্যাংকিংয়ে রয়েছে যথাক্রমে নয় ও দশে। ফলে এই দেশ দুটিকে বাছাইপর্বে অন্য চার দলের সঙ্গে যোগ্যতা প্রমাণ করে সুপার ১২’তে যেতে হবে। আর ঐ চার দলকে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে যেতে এ বছরের শেষে একটি টুর্নামেন্টে প্রতিযোগিতা করতে হবে।

বাছাইপর্বে বাংলাদেশ নিজেদের তিনটি ম্যাচ খেলবে যথাক্রমে ১৯, ২১ ও ২৩ অক্টোবর। এই পর্ব পেরুতে পারলে বাংলাদেশ দ্বিতীয় গ্রুপে থাকা ভারত, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, আফগানিস্তান ও প্রাথমিক পর্ব থেকে উঠে আসা অন্য দলের মুখোমুখি হবে।

এদিকে প্রথমবারের মতো নারীদের শীর্ষ ১০ দল নিয়ে ২০২০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আর ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ৮ মার্চ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here