আগামী মাসে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচে খেলা হচ্ছে না প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) ব্রাজিলীয় তারকা নেইমারের। আবারো তিনি পড়েছেন পায়ের পাতার (ম্যাটাটারসাল) ইনজুরিতে, যা তাকে ১০ সপ্তাহের জন্য ছিটকে দিয়েছে মাঠের বাইরে।

নেইমারের ইনজুরির খবর দিয়ে পিএসজি জানায়, বিশ্বের ব্যয়বহুল খেলোয়াড়টি এ দফায় অস্ত্রোপচার না করিয়ে বরং ‘রক্ষণশীল চিকিৎসা’ করাবেন। সুস্থ হয়ে তিনি ফিরবেন আগামী এপ্রিলে। পিএসজি চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোয় জিতলে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে পারেন নেইমার।

ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নরা লিখেছে, ‘বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সুবিশদ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সিদ্ধান্ত হয়েছে, নেইমারের ডান পায়ের পঞ্চম ম্যাটাটারসালে রক্ষণশীল চিকিৎসা করানো হবে। চিকিৎসকদের এ পরামর্শ ব্রাজিলীয় স্ট্রাইকারকে অবহিত করা হয়েছে এবং তিনি ১০ সপ্তাহের মধ্যে মাঠে ফিরবেন।’

গত সপ্তাহে ফ্রেঞ্চ কাপে স্ট্রসবুর্গের বিপক্ষে পিএসজির ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে চোট পান নেইমার। তখনই পিএসজি কোচ টমাস টুখেল ১২ ফেব্রুয়ারি ম্যানইউর মাঠে তার খেলার সম্ভাবনা নাকচ করে দেন। ৬ মার্চ শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগেও তাকে পাবেন ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। এখন পিএসজির আশা, কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে (৯ কিংবা ১০ এপ্রিল) তাদের হয়ে খেলতে পারবেন ২২২ মিলিয়ন ইউরোর ফরোয়ার্ড।

২০১৭ সালে পিএসজিতে নাম লেখানো নেইমার গত বছর ফেব্রুয়ারিতে একই ইনজুরিতে পড়ে প্রায় আড়াই মাস ছিলেন মাঠের বাইরে। অস্ত্রোপচার করানোয় ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণই হয়ে পড়েছিল অনিশ্চিত। যদিও সুস্থ হয়ে তিনি ঠিকই খেলেছেন রাশিয়া আসরে।

পিএসজির মতো ব্রাজিলও চিন্তা থাকবে নেইমারকে নিয়ে। আগামী জুন-জুলাইয়ে ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্ট। ওই আসরের আগেই দলসেরা তারকাকে ফিট চাইবেন ব্রাজিল কোচ তিতে। তার চোটের খোঁজখবর নিতে গত সপ্তাহে প্যারিসে আসেন ব্রাজিল জাতীয় দলের কোচ তিতে ও দলীয় চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার। এ লাসমারই গত বছর অস্ত্রোপচার করিয়ে সুস্থ করে তুলেছিলেন নেইমারকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here