আটালান্টার বিপক্ষে জ্বলে উঠতে পারেননি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো; পারেননি জুভেন্টাসের কেউই। ফলে ইতালিয়ান কাপের শিরোপা ধরে রাখার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে টানা চারবারের চ্যাম্পিয়নদের।

বুধবার রাতে তুরিনের ক্লাবটিকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে ১৯৬২-৬৩ মৌসুমে প্রতিযোগিতাটির শিরোপা জেতা আটালান্টা। এরই সঙ্গে ঘরোয়া ডাবল জয়ের স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল জুভিদের।

ম্যাচে জুভেন্টাসের বুকে প্রথম ছুরি চালান আতালান্টার কাসতাগনে। জুভেন্টাসের রক্ষণের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে ঠাণ্ডা মাথায় বল জালে জড়ান কাসতাগনে। মিনিট দু-এক পর আলেগ্রির শিষ্যদের ফের হতাশায় ডোবায় আতালান্টা। এবার কারিগর জাপাতা।

পেসালিচের রক্ষণচেরা পাস থেকে বল পেয়ে ক্লিনিক্যাল ফিনিশিং করেন জাপাতা। আতালান্টার মাঠে ১২তম মিনিটেই গোলের সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেছেন রোনালদো। পুরো ম্যাচে এমন আরও সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সেনা।

প্রথমার্ধেই পরপর দুই গোল হজমের ধকল সামলাতে পারেনি জুভেন্টাসের খেলোয়াড়েরা। তাদের শরীরী ভাষায় পরিষ্কার ভাবেই সেটা ফুটে উঠেছিল। মেজাজ ধরে রাখতে পারেননি আলেগ্রিও। আলেগ্রি তর্কে জড়িয়ে পড়ায় সাইড লাইনে দাঁড়িয়ে শিষ্যদের খেলা দেখে তাদের নির্দেশনা দেওয়ার সুযোগটা কেড়ে নেন রেফারি।

এদিকে সিয়েসার হ্যাটট্রিকে উড়ে গেছে রোমা। জোড়া গোল করেছেন সিমিওনে। একটি করে বেনাচ্চি ও মুরিয়েল। রোমার হয়ে সান্ত্বনার একমাত্র গোলটি করেন কলারোভ।

হারে জুভেন্টাস ও রোমা বিদায় নিয়েছে কোপা ইতালিয়ার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here