এএফসি এশিয়ান কাপের চারবারের চ্যাম্পিয়ন জাপানকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতেছে কাতার।

শুক্রবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবু ধাবির জায়েদ স্পোর্ট সিটি স্টেডিয়ামে ফাইনালে কাতারের পক্ষে গোল তিনটি করে আলী আলমোয়েজ, আবদেল আজিজ হাতিম ও আকরাম হাসান আফিফ।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ৪৩ ধাপ এগিয়ে থাকা জাপানিদের বিপক্ষে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে চলতি আসরে ছয় ম্যাচের সব কটিতে জয় নিয়েই প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠা কাতার। ম্যাচের ১২তম মিনিটে কাতারকে এগিয়ে নেন আলমোয়েজ আলী। দর্শনীয় এক বাই-সাইকেল কিকে বল জালে জড়ান ২২ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ১৯৯৬ সালে এক আসরে ৮ গোল করা ইরানের আলী দাইয়ীকে পেছনে ফেলে প্রতিযোগিতার সর্বোচ্চ ৯ গোল করার রেকর্ড এখন আলী আলমোয়েজের দখলে।

খেলার ২৭তম মিনিটে কাতারের পক্ষে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আবদেলআজিজ হাতিম। ডান প্রান্তে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি।

প্রথমার্ধে দুই গোল হজম করে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে মরিয়া হয়ে আক্রমণ চালাতে থাকে জাপান। ৬৯তম মিনিটে ব্যবধান কমিয়ে খেলায় উত্তেজনা ফেরান তাকুমি মিনামিনো।

৮১তম মিনিটে ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফারির (ভিএআর) সহায়তা নিয়ে হ্যান্ডবলের কারণে কাতারের পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সফল স্পট কিকে দলের তৃতীয় গোলটি করেন আকরাম হাসান আফিফ।

এর আগে মঙ্গলবার স্বাগতিক সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে এএফসি এশিয়ান কাপের ফাইনালে উঠে প্রতিদ্বন্দ্বী কাতার। আবুধাবির জাতীয় স্টেডিয়ামে আরব আমিরাতের শত্রুতামূলক আচরণ সত্ত্বেও বিশাল এ জয় পায় কাতারি দল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here