ভাষা আন্দোলন, শিক্ষা, সংস্কৃতি ও সমাজসেবার বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ এ বছর ২১ গুণিজনকে একুশে পদক প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বৃহস্পতিবার সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে একুশে পদকপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এই খবরে দেশের শিল্প, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণে খুশির জোয়ার বইছে। পদকপ্রাপ্তরা হলেন- ভাষা আন্দোলনে অধ্যাপক হালিমা খাতুন, অ্যাডভোকেট গোলাম আরিফ টিটু এবং অধ্যাপক মনোয়ারা ইসলাম। শিল্পকলায় সঙ্গীত বিভাগে তাৎপর্যবহ এই পদকের জন্য মনোনীত হয়েছেন সুবীর নন্দী, আজম খান (মরণোত্তর) এবং খায়রুল আনাম শাকিল।

শিল্পকলায় অভিনয় বিভাগে মনোনীত হয়েছেন লাকী ইনাম, সুবর্ণা মুস্তাফা এবং লিয়াকত আলী লাকী। শিল্পকলায় আলোকচিত্র বিভাগে মনোনীত হয়েছেন সাইদা খানম, শিল্পকলায় চারুকলা বিভাগে মনোনীত হয়েছেন জামাল উদ্দিন আহমেদ। এছাড়াও মুক্তিযুদ্ধে ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য, গবেষণায় ডক্টর বিশ্বজিৎ ঘোষ ও ড. মাহবুবুল হক, শিক্ষায় ডক্টর প্রণব কুমার বড়ুয়া, এবং ভাষা ও সাহিত্যে রিজিয়া রহমান, ইমদাদুল হক মিলন, অসীম সাহা, আনোয়ারা সৈয়দ হক, মইনুল আহসান সাবের ও হরিশংকর জলদাস।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচিত ২১ গুণী ব্যক্তিকে রাষ্ট্রীয় অন্যতম এই সর্বোচ্চ সম্মাননা প্রদান করবেন। পদকপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা পুরস্কার হিসেবে গ্রহণ করবেন একটি সোনার পদক, সনদপত্র ও দুই লাখ টাকার চেক।

এ সময় অনুষ্ঠানে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাগণ, জাতীয় সংসদের সদস্যবৃন্দ, বিচারপতিবৃন্দ, বিভিন্ন পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও অধ্যাপকবৃন্দ, রাজনীতিবিদ, কূটনীতিক, কবি, সাহিত্যিক, লেখক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন বলেন জানা গেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here