শুরুতে গোল খেয়ে বসলেও হার মানেনি চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে। দ্বিতীয়ার্ধে মালকমের অসাধারণ এক গোলে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালের প্রথম লেগে ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে বার্সেলোনা।

কাম্প নউয়ে বুধবার রাতে চির প্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটির মধ্যকার লড়াইটি ১-১ গোলে ড্র হয়।

ন্যু-ক্যাম্পে বুধবার শুরুতেই অবশ্য লুকাস ভাসকেসের গোলে এগিয়েছিল রিয়াল। বাঁ দিক থেকে ভিনিসিউস জুনিয়রের ক্রস ধরে ছোট ডি-বক্সে বল বাড়ান করিম বেনজেমা। আর প্রথম ছোঁয়ায় নিখুঁত শটে বল জালে পাঠান স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। এরপর ম্যাচের ২২তম মিনিটে বার্সেলোনার রক্ষণে ভীতি ছড়ায় ভিনিসিউস। তার দারুণ ক্রস ফাঁকায় পেয়েছিলেন টনি ক্রুস; কিন্তু বল নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হন তিনি।

এদিকে ম্যাচের ৩৩তম মিনিটে ভাগ্য সঙ্গে থাকলে সমতায় ফিরতে পারতো বার্সেলোনা। কিন্তু

মালকমের ফ্রি-কিকে ইভান রাকিতিচের হেড গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও ক্রসবারে বাধা পায়। এ দুই মিনিট পর আট গজ দূর থেকে লুইস সুয়ারেজের বাঁ পায়ের শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন কেইলর নাভাস।

বিরতির পর কিছুটা হলেও রক্ষণাত্বক ভুমিকায় অবতীর্ণ হয রিয়াল। সেই সুযোগে চাপ বাড়ানো বার্সেলোনা ৫৭তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত সমতাসূচক গোলের দেখা পায়। বাঁ-দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়া জর্দি আলবাকে ঠেকাতে ছুটে আসেন নাভাস। আলগা বল পেয়ে জোরালো শট নেন সুয়ারেজ। কিন্তু বল পোস্টে লেগে চলে যায় ডান দিকে অরক্ষিত মালকমের পায়ে। বাঁ পায়ের উঁচু শটে কাছের পোস্ট ঘেঁষে বল ঠিকানায় পাঠান ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

সমতায় ফেরার পর ম্যাচের ৬৪তম মিনিটে কৌতিনহোকে বসিয়ে মেসিকে নামান ভালভার্দে। এদিকে রাকিতিচের জায়গা আর্তুরো ভিদাল যোগ দেন সতীর্থদের সঙ্গে নামায় বার্সেলোনা। অন্যদিকে ভিনিসিউস ও মার্কোস লরেন্তেকে তুলে গ্যারেথ বেল ও কাসেমিরোকে নামায় সান্তিয়াগো সোলারি। তারপরও দুই দলের ভাগ্য ফেরেনি। মানে শেস পর্যন্ত আর জালের দেখা পায়নি তারা।

অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা নিয়ে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে কোপা ডেল রের সেমিফাইনালের ফিরতি পর্বে মাঠে নামবে রিয়াল। তবে বার্সেলোনার আশাহত হওয়ার কিছু নেই। যেকোন ব্যবধানে জিতলেই এ টুর্নামেন্টের টানা পঞ্চমবার ফাইনালে উঠে যাবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here