থাইল্যান্ডের আসন্ন নির্বাচনে রাজকুমারী উবলরত্নার প্রার্থিতার ওপর রাজার দেওয়া নিষেধাজ্ঞা মেনে নিয়েছে ‘থাই রাকসা চার্ট পার্টি’। আজ (শনিবার) দলটির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তারা রাজার নির্দেশ মেনে নিয়েছে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে ব্যতিক্রমী নজির সৃষ্টি করেন থাইল্যান্ডের রাজার বোন রাজকুমারী উবলরত্না সিরিভাধানা।

৬৭ বছরের রাজকুমারী বর্তমান রাজা মাহা ভাজিরালংকর্নের বড় বোন এবং প্রয়াত রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজের প্রথম সন্তান। নির্বাসিত সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার দলের একজন প্রার্থী হিসেবে রাজকুমারী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।

এরপরই রাজা তার বোনের প্রার্থিতার বিরোধিতা করে বলেন, রাজপরিবারকে রাজনীতির উর্ধ্বে থাকতে হবে এবং রাজপরিবারের সদস্যরা সবার কাছে অত্যন্ত সম্মানিত।

আসছে ২৪ মার্চ থাইল্যান্ডে জাতীয় নির্বাচন। থাইল্যান্ডের সামরিক জান্তা নেতা প্রায়ুথ চান-ওচা এতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ২০১৪ সালের মে মাসে সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেন প্রায়ুথ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here