ভেনিজুয়েলার নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে প্রয়োজনে মার্কিন সামরিক হস্তক্ষেপ কামনা করবেন প্রধান বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইডো। মাদুরোকে জোর করে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে ওয়াশিংটন ভেনিজুয়েলার জেনারেলদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলছে বলে যখন খবর বের হয়েছে তখন এ কথা বললেন গুয়াইডো।

তিনি বার্তা সংস্থা এএফপিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ভেনিজুয়েলায় মার্কিন সামরিক হস্তক্ষেপের সম্ভাবনা নাকচ না করে বলেন, প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে পদত্যাগে বাধ্য করার জন্য তিনি প্রয়োজনে আমেরিকাকে সামরিক হস্তক্ষেপের অনুমতি দেবেন।

৩৫ বছর বয়সি বিরোধীদলীয় এই নেতা দাবি করেন, তিনি ভেনিজুয়েলার চলমান রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার অবসান ঘটাতে চান।

গুয়াইডো এমন সময় অস্থিতিশীলতার অবসান ঘটানোর দাবি করলেন যখন আমেরিকা ও তার মিত্রদের সমর্থন নিয়ে তিনি সম্পূর্ণ অবৈধভাবে নিজেকে ভেনিজুয়েলার অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করে এই অস্থিতিশীলতার জন্ম দিয়েছেন। ভেনিজুয়েলা সরকার গুয়াইডো’র ওই ঘোষণাকে ক্যু করার প্রচেষ্টা হিসেবে অভিহিত করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুয়াইডোকে ভেনিজুয়েলার অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পাশাপাশি দেশটিতে প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ করার হুমকি দিয়েছেন।তবে আমেরিকার এই অবস্থান ঘোষণা সত্ত্বেও চীন, রাশিয়া, ইরান, তুরস্ক ও মেক্সিকোসহ আরো কিছু দেশ নিকোলাস মাদুরো সরকারকে সমর্থন জানিয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here