ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো তার দেশে আমেরিকার ত্রাণ পাঠানোর ঘটনাকে উপহাস করে বলেছেন, এর আগে মার্কিন ত্রাণ গ্রহণ করে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া ও লেবানন ধ্বংস হয়েছে।

তিনি শনিবার রাজধানী কারাকাসে এক সংবাদ সম্মেলনে আমেরিকার কথিত মানবিক ত্রাণকে ‘বিষ’ বলে অভিহিত করেন।কোনো অবস্থাতেই এই ত্রাণ ভেনিজুয়েলায় প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলে তিনি সতর্ক করে দেন।

আমেরিকা ত্রাণের নামে ভেনিজুয়েলার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করতে চায় বলে অভিহিত করেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো।

মার্কিন সরকার ল্যাতিন আমেরিকার দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের একই সময়ে সেদেশে মানবিক ত্রাণ পাঠিয়েছে। ত্রাণের খাদ্য ও ওষুধবাহী কিছু ট্রাক বৃহস্পতিবার কলম্বিয়ার সীমান্ত শহর কুকুটায় পৌঁছায়।

ভেনিজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইডো গতমাসে আমেরিকা ও তার মিত্রদের সমর্থন নিয়ে নিজেকে ভেনিজুয়েলার অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করলে দেশটিতে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা দেখা দেয়। ভেনিজুয়েলা সরকার গুয়াইডো’র ওই ঘোষণাকে ক্যু করার প্রচেষ্টা হিসেবে অভিহিত করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুয়াইডোকে ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার পাশাপাশি দেশটিতে প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ করার হুমকি দিয়েছেন।তবে আমেরিকার এই অবস্থান ঘোষণা সত্ত্বেও চীন, রাশিয়া, ইরান, তুরস্ক ও মেক্সিকোসহ আরো কিছু দেশ ভেনিজুয়েলার নিকোলাস মাদুরো সরকারকে সমর্থন জানিয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here