চেলসির জার্সিতে কালই প্রথম মাঠে নেমেছিলেন গঞ্জালো হিগুয়েন। তার অভিষেকের দিনে আর্জেন্টাইন সতীর্থকে লজ্জায় ডুবিয়ে দারুন এক হ্যাটট্রিক তুলে নিলেন সার্জিও আগুয়েরা। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে রোববার তার হ্যাটট্রিকে চেলসিকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে র্তমান লীগ চ্যাম্পিয়নরা। জোড়া গোল করেন রাহিম স্টার্লিং। আরেক গোলদাতা ইলকাই গিনদোয়ান।

তিন দিনের ব্যবধানে হ্যাটট্রিক করলেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। স্পর্শ করলেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিকের মালিক অ্যালান শিয়েরারকে। প্রিমিয়ার লীগে এ নিয়ে ১১টি হ্যাটট্রিক করলেন আর্জেন্টাইন এই তারকা। সমান সংখ্যক হ্যাটট্রিক করে প্রতিযোগিতার ইতিহাসে এতদিন রেকর্ডটির একা মালিক ছিলেন ইংল্যান্ডের শিয়েরার।

এদিন ম্যাচের ২৫ মিনিটেই ৪-০ গোলের লিড নিয়ে নেয় প্রিমিয়ার লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। স্টার্লিং যখন প্রথম গোলমুখ খুললেন ম্যাচের বয়স তখন মাত্র ৪ মিনিট। এরপর ১৩ মিনিটে আগুয়েরো গোলের মুখ খোলেন। ছয় মিনিটের ব্যবধানে ফের গোল আগুয়েরোর। তাতে ৩-০ গোলের লিড পায় সিটি। ২৫ মিনিটে জার্মান মিডফিল্ডার ইলকাই গিনদোয়ানেরে গোলে ৪-০ তে এগিয়ে যাওয়া সিটির। সেই ব্যবধানেই বিরতিতে যায় দলটি।

বিরতি থেকে ফিরতেই পেনাল্টি উপহার পায় তারা। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে সেই স্পট কিক থেকে গোল করে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন আগুয়েরো। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আগুয়েরোর এটি ১১তম হ্যাটট্রিক। যা অ্যালন শিরেরার সমান। দুজন এখন যৌথভাবে প্রিমিয়ার লিগে সর্বোচ্চ হ্যাটট্রিকের মালিক। ৫৬ মিনিটে ৫-০ গোলে এগিয়ে থাকা ম্যানসিটি চেলসিকে আর কত গোল দেয় সেটিই তখন হয়ে উঠে সবার জানার প্রধান আগ্রহ। অবশ্য আর একটি গোলই করতে পেরেছে সিটি। ৮০ মিনিটে সেই গোল স্টার্লিংয়ের। যার পরেই এদিন গোল উৎসবের শুরু সিটির। তবে এদিন একেবারেই ছায়া হয়ে থাকলেন হ্যাজার্ড-হিগুয়াইনরা।

চেলসিতে হিগুয়েইন থাকায় ম্যাচটায় আগুয়েরো-হিগুয়েইন দ্বৈরথের বিষয়টিও ছিল। দুই আর্জেন্টাইনের লড়াইয়ে রাজকীয় কীর্তি আগুয়েরোর। যার আলোয় একেবারেই যেন ঢাকা পড়ে থাকলেন হিগুয়েইন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here