ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, ক্ষেপণাস্ত্রসহ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরির জন্য তেহরান কারো অনুমতি নেয় না এবং ভবিষ্যতেও নেবে না। ইরান দৃঢ়তার সঙ্গে নিজের পথচলা অব্যাহত রাখবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সোমবার রাজধানী তেহরানের ঐতিহাসিক আজাদি স্কয়ারে বিপ্লব বার্ষিকীর জনসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহানি আরও বলেছেন, বিশ্বের সবাই জানে সাদ্দামের চাপিয়ে দেওয়া যুদ্ধের সময়ের চেয়ে বর্তমানে ইরান অনেক বেশি শক্তিশালী এবং ইরানের সশস্ত্র বাহিনী বিভিন্ন ধরণের অস্ত্র ও সরঞ্জাম তৈরিতে স্বনির্ভরতা অর্জন করেছে।

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর সাহসিকতা ও দৃঢ়তার প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, গোটা বিশ্বই দেখেছে ইরানের সদিচ্ছা ও সহযোগিতায় সিরিয়া, ইরাক ও লেবাননের জনগণ বিজয় অর্জন করেছে এবং ফিলিস্তিন ও ইয়েমেনের জনগণ আগ্রাসী ও দখলদারদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ চালিয়ে যাচ্ছে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, শত্রুরা এখন তাদের ২০ বছরের ব্যর্থতা ও হস্তক্ষেপের কথা স্বীকার করে আস্তে আস্তে এই অঞ্চল থেকে সরে পড়তে বাধ্য যাতে এখানকার মানুষ স্বাধীনভাবে উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে যাত্রা অব্যাহত রাখতে পারে।

আজ বিজয় বার্ষিকীর মিছিল ও শোভাযাত্রায় মানুষের ব্যাপক উপস্থিতির প্রশংসা করে তিনি বলেন, জনগণের ব্যাপক উপস্থিতি প্রমাণ করে শত্রুদের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে এবং তারা কখনোই তাদের অশুভ লক্ষ্য হাসিল করতে পারবে না, ইসলামি ইরান অতীতের মতো আগামীতেও নিজের পথচলা অব্যাহত রাখবে।

পেট্রো-কেমিক্যালসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইরানের উন্নয়নের প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্রের দ্রুত গতির উন্নয়নের কথা গোটা বিশ্বই স্বীকার করছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here