ঘরোয়া লিগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হোঁচট খেল পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা বার্সেলোনা। অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ে মাঠ থেকে গোলশূন্য ড্র করে ফিরেছে মেসি-পিকেরা।

রবিবার রাতে লা লিগার ম্যাচটিতে বার্সার হয়ে নিজেদের সেরাটা কেউই দিতে পারেননি। খোদ লিওনেল মেসিও না! এই ড্রয়ের ফলে শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকতে রিয়াল মাদ্রিদের আশা জাগিয়ে রাখল খোদ বার্সা!

পুরো ম্যাচে বার্সার জার্মান তারকা গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে  টের স্টেগেনের পারফরম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। বলতে গেলে তার দুর্দান্ত কিছু সেভেই হারতে হারতে বেঁচে যায় বার্সা। অন্যদিকে কাতালানদের সঙ্গে ম্যাচের পুরোটা সময় দারুণ খেলেছে বিলবাও।

লা লিগায় টানা দ্বিতীয় ও সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা তৃতীয় ম্যাচ ড্র করল বার্সেলোনা। লিগে আগের ম্যাচে ভ্যালেন্সিয়ার সঙ্গে ২-২, এরপর কোপা দেল রের ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিল তারা।

১৭তম মিনিটে ডি-বক্সের কিনারা থেকে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার মার্কেল সুসায়েতার জোরালো শট দারুণ নৈপুণ্যে বাঁ হাত দিয়ে কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান বার্সেলোনা গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

২৪তম মিনিটে গোলরক্ষক বরাবর বাইসাইকেল কিক নেন রাউল গার্সিয়া। ২৬তম মিনিটে নেলসন সেমেদোকে আটকাতে এগিয়ে যান বিলবাও গোলরক্ষক। সেই সুযোগে আলগা বল পেয়ে প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে মেসির নেওয়া শট ক্রসবারের উপরের অংশে লাগে।

দ্বিতীয়ার্ধেও অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে আক্রমণে উঠতে থাকে বার্সেলোনা। কিন্তু কোনো সুযোগই পাচ্ছিল না তারা। উল্টো ৮২তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সহজ সুযোগ পেয়েছিলেন ইনাকি উইলিয়ামস। তবে অরক্ষিত এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডের শট দারুণ রুখে দেন টের স্টেগেন। যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে বিলবাওয়ের স্প্যানিশ ডিফেন্ডার অস্কার দে মার্কোস দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ে। তবে প্রতিপক্ষে এক জন কম থাকার সুযোগ বাকি সময়ে কাজে লাগাতে পারেনি বার্সেলোনা।

গত সপ্তাহে ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে ঘরের মাঠে প্রথমে দুই গোল খেয়ে বসা বার্সেলোনা পরে মেসির জোড়া গোলে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল। আর এবার জালের দেখাই পায়নি দলটি। চলতি মৌসুমে এই প্রথম ম্যাচে গোলের দেখা পেল না কাতালান ক্লাবটি। সব মিলিয়ে টানা তিন ম্যাচ ড্র করলো মেসিরা। ২৩ ম্যাচে ১৫ জয় ও ছয় ড্রয়ে শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৫১। শনিবার আটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠে ৩-১ গোলে জেতা রিয়াল মাদ্রিদ ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে। তিন নম্বরে থাকা দিয়েগো সিমেওনের দলের পয়েন্ট ৪৪। ৭ পয়েন্ট কম নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে সেভিয়া।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here