দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিন মাথা বিশিষ্ট শিশুর জন্ম হয়েছে। শিশুটি হাত-পা ও শরীরের বিভিন্ন অংশ স্বাভাবিক থাকলেও মাথাটি ফুল আকৃতির এবং চোখ দুটো মাথা থেকে বের হওয়া। শিশুটির মাথার আকৃতি দেখে মনে হয় শিশুর তিনটি মাথা।

দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় সিজারের মাধ্যমে এই শিশুটির জন্ম দিয়েছেন পার্বতীপুর উপজেলার গুলপাড়া গ্রামের রিয়াজুল ইসলামের স্ত্রী জয়নব বানু।

রিয়াজুল ইসলাম জানায়, ৯ মাসের প্রসব বেদনা নিয়ে গত রোববার সকালে তার স্ত্রী জয়নব বানুকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর গতকাল সোমবার দুপুরে এই শিশুর জন্ম হয়।

হাসপাতালের গাইনী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শরিফুন নাহার প্রিয়া বলেন, শিশুটির এই অদ্ভুত আকৃতিকে “কনজিনটাল এ্যাবনরমালিটি” বলা হয়। শিশুটির চোখ এখনও ডেভেলপ হয়নি। শিশুটি প্রি-ম্যাচিউরড, ইনকিউবেটরে রাখা হয়েছে।

এদিকে অদ্ভুদ আকৃতির এই শিশুটি জন্ম নেয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ায় শিশুটিকে দেখার জন্য হাসপাতালে উৎসুক জনতার ভীড় করে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here