ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি আবাসিক হোটেলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার ভোরের এ ঘটনায় আগুন লেগে শিশুসহ অন্তত ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও তিন জন। ভোরবেলা হওয়ায় এ সময় হোটেলে থাকা অধিকাংশ মানুষ ঘুমিয়ে ছিলেন। ফলে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন দিল্লি দমকল বাহিনীর প্রধান অতুল গর্গ। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় ভোর ৪টার দিকে দিল্লির কারোল বাগের হোটেল আরপিত প্যালেসে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দুই ডজনেরও বেশি গাড়ি নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় অগ্নিনির্বাপণ কর্মীরা। সকাল ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় তারা। তবে তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি।

অগ্নিকাণ্ডের পর পাঁচজনকে উদ্ধার করে লেডি হার্ডিঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে একজনের মৃত্যু হয়। আরএমএল হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে আরও ১৩ জনের।

মৃতদের এক নারী ও একটি শিশুও রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, হোটেলের একটি জানালা দিয়ে লাফিয়ে বের হওয়ার চেষ্টাকালে তাদের মৃত্যু হয়।

দমকল বাহিনী সূত্রে জানা গেছে, এক অনুষ্ঠানের জন্য ৩৫ কক্ষবিশিষ্ট হোটেলটি বুক করেছিল একটি পরিবার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here