মানুষ আশরাফুল মাখলুকাত বা সৃষ্টির সেরা জীব। আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেক মানুষকে কিছু দায়িত্ব দিয়ে দুনিয়েতে পাঠিয়েছেন। সে দায়িত্ব কতটুকু পালন করেছে তার জবাবদিহি তাকে অবশ্যই করতে হবে। আল্লাহ তায়ালা পৃথিবীকে মানুষের জন্য বসবাসযোগ্য করে দিয়েছেন। আর এর সঠিক তদারকি করা ও রক্ষণাবেক্ষণ করার দায়িত্ব মানুষের।   এসম্পর্কে কুরআনে সুরা জিলজাল এর ৭ ও ৮ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে, কেউ অণু পরিমাণ সৎকর্ম করলে সে তা দেখতে পাবে এবং কেউ অণু পরিমাণ অসৎকর্ম করলে সে তাও দেখতে পাবে।

নিজ ভূমি বা দেশের প্রতি সবার দায়িত্ব ও কর্তব্য সীমাহীন। দেশ প্রেম ঈমানের অঙ্গ। মক্কা থেকে হিজরতের পর রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, তোমার শহর কতই না সুন্দর, আমি তোমায় ভালোবাসি। আমার জনগণ যদি আমাকে বের করে না দিত, কখনো আমি তোমায় ছেড়ে অন্য কোথাও যেতাম না (তিরমিজি : ৩৯৫২)।যে ব্যক্তি মুক্তি ও পুণ্য চায় সে যেন আল্লাহ যতটুকু শরিয়ত দিয়েছেন তাতেই সীমাবদ্ধ থাকে। বেদাত থেকে সতর্ক থাকে। বেদাত হলো- নানাবিধ ফেতনা, পরীক্ষা, দুর্দশা, নাফরমানি, গোনাহ ও অপরাধের আখড়া। যা সুন্নত থেকে দূরে সরিয়ে দেয়। উম্মাহর ঐক্য বিনষ্ট করে। দ্বীন, বুদ্ধি ও স্বভাবকে ধ্বংস করে। কোনো গোষ্ঠী একটি বেদাতে লিপ্ত হলো মানে তারা অনুরূপ একটি সুন্নতকে ছেড়ে দিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here