কাতার ওপেনের শীর্ষ বাছাই সিমোনা হালেপ অবিশ্বাস্য হার দেখলেন। ফাইনালে তাকে হারিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেছেন বেলজিয়ান এলিস মার্টেন্স।

২৩ বছর বয়সী মার্টেন্স হার দিয়ে শুরু করলেও পরের দুই সেটে ছিলেন খুব বেশি আক্রমাণাত্মক। টানা পয়েন্ট হারিয়ে ঘুরে দাঁড়ান দ্বিতীয় সেটে। ৩-৬ গেমে প্রথম সেটে হেরে পরের দুই সেট অবিশ্বাস্য ভাবে জিতে নেন ৬-৪, ৬-৩ গেমে।

র‌্যাংকিংয়েও দুই তারকার মাঝে ছিলো বিস্তর ফারাক। বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে ৩ নম্বর অবস্থানে আছেন হালেপ আর ২১ নম্বরে আছেন মার্টেন্স। তাই ক্যারিয়ারের বড় জয়ের তালিকায় এটা হয়ে থাকলো তৃতীয়।

এর আগে সেরা দশের দুই তারকাকে হারানোর কৃতিত্ব গড়েছিলেন। জয়ের পর আনন্দিত মার্টেন্স জানালেন, ‘সিমোনা অসাধারণ একজন খেলোয়াড়। তাই তার বিপক্ষে ট্রফি জিততে পেরে ভালো লাগছে।’

সবশেষ ২০১৪ সালে কাতার ওপেনের শিরোপা জিতেছেন হালেপ। প্রতিপক্ষের কাছে হেরে গেলেও এলিসকে প্রশংসায় ভাসালেন রোমানিয়ান এই খেলোয়াড়, ‘  সত্যি করে বলতে আমি এই শিরোপা জিততে চেয়েছিলাম। কিন্তু এলিস এটার যোগ্য দাবিদার ছিলো।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here