আগামী রোববার ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি নয় গণতামাশা করতে চাচ্ছে-এ মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার সড়ক ও জনপথ বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রকৌশলী, প্রকল্প পরিচালক ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ গণশুনানিতে কোনো বাধা দেবে না।

এসময় উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির তৃণমূল নেতাদের ব্যাপকভাবে অংশগ্রহণ দলটির ভঙ্গুর নেতৃত্বেরই প্রমাণ বলেও মন্তব্য করেন এ আওয়ামী লীগ নেতা।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীদের করা মামলায় আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে পঙ্গু হয়ে যাবে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ নয় মামলা করতে করতে তারা (ঐক্যফ্রন্ট) নিজেরাই পঙ্গু হয়ে যাবে।

ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানির জন্য তাদের কোনো জায়গা দেয়া হচ্ছে না এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান তো খোলা আছে। সেখানে কোনো প্রকার বাধা-বিঘ্নের বিষয় তো নেই।

গণশুনানি আয়োজনের ব্যাপারে ঐক্যফ্রন্ট কী অনুমতি পাবে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, কেন অনুমতি? কিসের জন্য? গণ-তামাশার জন্য? গণশুনানি কাকে বলে? গণশুনানি নাকি গণ-তামাশা? গণ-তামাশার জন্য অনুমতি চাইলে আমি তো পুলিশ কমিশনারকে বলবো বিষয়টি দেখে ব্যবস্থা নিতে।

১৪ দল ভাঙার ব্যাপারে ও বিরোধী দলের ভূমিকা কী হবে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, কেউ যদি ১৪ দল ভাঙতে পারে বলে শঙ্কিত বা উদ্বিগ্ন থাকেন তাদের বলছি, উদ্বিগ্ন বা শঙ্কার কারণ নেই। এই আছে মান-অভিমান, আবার চলে যাবে। এটা কোনো পার্মানেন্ট সমস্যা না।

ডাকসু নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগের জন্য কোনো প্যানেল তৈরি করে দেবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, না, এটা ওরা নিজেরাই করবে। প্রধানমন্ত্রীও ছাত্রলীগের কমিটির জন্য ভূমিকা রেখেছেন। ছাত্রলীগ একটা শর্ট লিস্ট করেছে। সেজন্য একটা কমিটিও করে দিয়েছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here