পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী অর্থাৎ দেশটির সাবেক অধিনায়ক ইমরান খানের সাথে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার নভোজিৎ সিং সিধুর বন্ধুত্বের খবর নতুন কিছু নয়। তবে সেই বন্ধুত্বই কাল হয়েছে এবার। যার কারণে নিজ দেশেও বেশ বিপাকে পড়তে হচ্ছে সিধুকে।

কিছুদিন আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন দেশটির বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক অধিনায়ক ইমরান খান। সেই শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য দাওয়াত পেয়েছিলেন ভারতীয় অনেক ক্রিকেটারই। এদের মধ্য বন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন নভোজিৎ সিং সিধু। বন্ধু ইমরান আর পাকিস্তান প্রীতির জন্য এবার বেশ ভালোভাবেই মাশুল দিতে হচ্ছে সিধুকে।

গত বৃহস্পতিবার জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপি জওয়ানদের গাড়িতে আত্মঘাতী হামলা হয়। ১০০ কেজি বিস্ফোরক বোঝাই গাড়িটি ধাক্কা মারে ভারতীয় জওয়ানদের একাধিক গাড়িতে। এতে অন্তত ৪২ জন সেনা সদস্য নিহত হন, আহত হন আরো অনেকে। এই ঘটনার পর থেকেই ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা ভারত। এই হামলার জন্য তারা কাঠগড়াতে তুলছে পাকিস্তানকে। এরপর উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দুই দেশ, বিরাজ করছে যুদ্ধে লিপ্ত হয়ে পড়ার মত পরিস্থিতি।

তবে হামলার পর ‘পুলওয়ামা নাশকতার জন্য সামগ্রিক ভাবে পাকিস্তান রাষ্ট্রকে দায়ী করা ঠিক হবে না’ বলে মন্তব্য করে বসেন সিধু। এই মন্তব্যের পরই দেশ জুড়ে রোষানলের মুখে পড়েছিলেন কংগ্রেস মন্ত্রিসভার অন্যতম এই সদস্য। পুলওয়ামা ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ভারত যেখানে সারা পৃথিবীতে নানা ভাবে কোণঠাসা করার চেষ্টা করছে পাকিস্তানকে, সেখানে সিধুর এই মন্তব্যকে ‘দেশদ্রোহী’ বলতেও ছাড়েনি দেশের বিভিন্ন মহল।

কিছুদিন আগে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংয়ের সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন সিধু। এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে কটাক্ষ করলেন খোদ কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং। এক টুইট বার্তাতে সিধুর প্রতি দিগ্বিজয় পরামর্শ দিয়ে বলেছন, ‘নভজোৎ সিং সিধুজি, দয়া করে আপনার বন্ধু ইমরান খানকে বোঝান। ওনার জন্যই তো আপনাকে গালি খেতে হচ্ছে।’

প্রসঙ্গত, পাকিস্তান নিয়ে সিধুর এমন মন্তব্যের পর তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভে উত্তাল হয়ে পড়ে সারা দেশ। পরিস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক হয়ে দাঁড়ায় যে, কপিল শর্মার কমেডি শো থেকে বাদও দিয়ে দেওয়া হয় সিধুকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here