মার্কিন নিষেধাজ্ঞা মোকাবিলা করার জন্য ইরান এমন কিছু পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে যার ফলে তেহরানকে ওয়াশিংটনের সঙ্গে নতুন করে চুক্তিতে যেতে হবে না। ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি এ সংকল্প ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেছেন, এসব পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে ইরানের সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

তিনি ইরানের তাসনিম বার্তা সংস্থাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “মূলত (মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড) ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে কোনো (আলোচনা বা) চুক্তিতে যাওয়াই ভুল। কারণ, এর ফলে প্রমাণ হবে আমেরিকার পক্ষ থেকে (২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতার) প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘনের বিষয়টি আমরা মেনে নিয়েছি।”

শামখানি বলেন, বর্তমান মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে কোনো চুক্তি করলে এর পরের প্রশাসন তা মেনে  চলবে কিনা তার কোনো গ্যারান্টি নেই। তিনি আরো বলেন, ওয়াশিংটনকে আগে নিজের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করার বিষয়টি স্বীকার করে নিজের সদিচ্ছার প্রমাণ দিক। তারপর ইরান আমেরিকার সঙ্গে নতুন কোনো চুক্তি করার বিষয়টি বিবেচনা করবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের মে মাসে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে তার দেশকে বের করে নেন। এরপর একই বছরের নভেম্বরে তেহরানের ওপর আমেরিকার পক্ষ থেকে কঠোরতম নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। আমেরিকার পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য বেশ কিছু শর্ত আরোপ করা হলেও ইরানি কর্মকর্তারা বলেছেন, এসব অন্যায় আবদারের কাছে ইরানের জনগণ নতি স্বীকার করবে না।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here