না জানিয়ে বাড়িতে একসঙ্গে হাজির হলেন ১৪ জন প্রেমিকা। এ ঘটনার জন্যে মোটেও প্রস্তুত ছিলেন না প্রেমিক। ফলে চমকে গিয়ে কোমায় চলে গেছেন তিনি। এমনি ঘটনা ঘটেছে ভারতের দিল্লি শহরে।

রাকিবের সেই ১৪ জন প্রেমিকার একজন রাকিবের ফোন ঘেঁটে দেখতে পান সেখানে ‘বেবি গার্ল ১’, ২, ৩ থেকে থেকে ১৪ পর্যন্ত নাম দিয়ে ১৪ জন মেয়ের নম্বর সেভ করা।

প্রেমিকের বয়স মোটে ১৮। আর এর মধ্যেই তার যা কীর্তিকলাপ, তা শুনে বিশ্বাস না-ও হতে পারে!

১৮ বছর বয়সী রাকিবের আসলে মোটে একটি প্রেমিকাকে নিয়ে শান্তি হচ্ছিল না। তাই দুটো, তিনটে নয়, এক্কেবারে ১৪ জন মেয়ের সঙ্গে একসঙ্গে প্রেম করছিলেন তিনি।

জরিনা নামে এক প্রেমিকা জানান, আমি জানতে পারলাম যে রাকিব ১৩ জন মেয়ের সাথে আমাকেও প্রতারণা করছিল। আমার আগে তার ওপর সন্দেহ ছিল। তাই একদিন আমি গোপনে তার ফোন চেক করলাম এবং দেখেছি যে সে ১৩ জন অন্যান্য মেয়েকে তার মেসেঞ্জারে বেবিগার্ল নামে ডাকে (১,২,৩ এবং আরও)। জরিনা তখনই শুরু করেন প্ল্যানিং।

একে-একে বাকি ১৩ জনের সঙ্গে কথা বলে ফাঁস করে দেন রাকিবের সত্যিটা। তাদের ‘কমন প্রেমিক’কে শিক্ষা দিতে একদিন সকলে একসঙ্গে পৌঁছে যান রাকিবের বাড়ি।

ঘুম থেকে উঠে ঘরে একসঙ্গে ১৪ জনকে দেখে ভয়ংকর ঘাবড়ে যান রাকিব। এতটাই যে শকে কোমায় চলে গিয়েছেন তিনি!

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here