পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি বলেছে, ভারতীয় বিমান বাহিনীর আটক উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ছেড়ে দেয়ার জন্য ইসলামাবাদের ওপর কোনো আন্তর্জাতিক চাপ ছিল না। ভারতের সঙ্গে বিরাজমান উত্তেজনা প্রশমনের উদ্দেশ্যেই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তাকে ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। কোরেশি বলেন, আটক ভারতীয় বৈমানিক অভিনন্দনকে ছেড়ে দিতে পাকিস্তান বাধ্য ছিল না কিংবা এজন্য ইসলামাবাদের ওপর কোনো আন্তর্জাতিক চাপও ছিল না। ভারতীয় নীতির কারণে আঞ্চলিক শান্তি হুমকির মুখে পড়ুক পাকিস্তান তা চায় না বলেও জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, পুলওয়ামার ঘটনাকে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য ব্যবহার করেছে একথা ভারতের প্রায় ২১টি রাজনৈতিক দল বলেছে। ভারতের একটি বৃহৎ অংশ শান্তি চায় বলেও দাবি করেন তিনি।

ভারতীয় কারাগারে পাকিস্তানি বন্দির মৃত্যুর বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ক্ষুব্ধ জনতার মারমুখী মানসিকতা সব জায়গাতেই দেখতে পাওয়া যায়। পাকিস্তানে মারমুখী জনতার হাত থেকে ভারতীয় বৈমানিককে রক্ষা করেছে পাক সেনাবাহিনী। অন্যদিকে ভারতের জয়পুর কারাগারে পাকিস্তানি বন্দি নিহত হয়েছে।

এর আগে দেয়া সাক্ষাৎকারে কোরেশি বলেন, ভারতসহ যেকোনো দেশের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী তৎপরতা চালানোর জন্য পাকিস্তানের ভূমি ব্যবহার করতে দেবে না ইসলামাবাদ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here