বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের রেকর্ড ধরে রাখল টিম ইন্ডিয়া৷ মার্কাস স্টওনিসের ব্যাটে সিরিজে সমতা ফেরানোর চেষ্টা করেও জিততে পারল না অস্ট্রেলিয়া৷ ২৫০ রান তাড়া করে দুর্দান্ত লড়াইয়ের পর ২৪২ রানে থেমে যায় অজিবাহিনী৷

সেই সঙ্গে জামথায় বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের স্টেডিয়ামে ভারতের বিরুদ্ধে চারবারের সাক্ষাতে একবারও জয়ের মুখ দেখল না অজিরা৷ এই জয়ের ফলে বিশ্বকাপের আগে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২-০ এগিয়ে গেল বিরাটবাহিনী৷

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা দারুণ করেছিলেন দুই অজি ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও উসমান খাওয়জা৷ ওপেনিং জুটিতে ৮৩ রান যোগ করে ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে রাখে অস্ট্রেলিয়া৷ কিন্তু শন মার্শ (১৬) ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে (৪) দ্রুত প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখিয়ে ভারতকে ম্যাচে ফেরান রবীন্দ্র জাদেজা ও কুলদীপ যাদব৷ তারপর অবশ্য অজিদের লড়াইয়ে রাখেন স্টওনিস ও হ্যান্ডসকম্ব৷ জাদেজার দুরন্ত থ্রোতে ব্যক্তিগত ৪৮ রানে রানআউট হয়ে হ্যান্ডসকম্ব প্যাভিলিয়নে ফেরার পর চাপ এসে পড়ে স্টওনিসের উপর৷ একাই দায়িত্ব নিয়ে দলকে টানতে থাকেন অজি অলরাউন্ডার৷

কিন্তু ইনিংসের ৪৬তম ওভারে জসপ্রীত বুমরাহের জোড়া উইকেটে ম্যাচে ফেরে ভারত। তবে স্টওনিস একা চেষ্টা করলেও শেষরক্ষা হয়নি। ইনিংসের শেষ ওভারে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার দরকার ছিল ১১ রান। হাতে দু’ উইকেট। কিন্তু প্রথম বলে স্টওনিসকে এলবিডব্লিউ করেন বিজয় শঙ্কর। সেই সঙ্গে ম্যাচ বিরাটের পকেটে ঢুকে। তৃতীয় ডেলিভারিতে অস্ট্রেলিয়ার নম্বর ইলেভেন অ্যাডাম জাম্পার স্টাম্প ছিটকে দিয়ে ভারতকে রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দেন বিজয়৷

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত: ৪৮.২ ওভারে ২৫০/১০ (কোহলি ১১৬, শঙ্কর ৪৬, ধাওয়ান ২১, জাদেজা ২১; কামিন্স ৪/২৯)।

অস্ট্রেলিয়া: ৪৯.৩ ওভারে ২৪২/১০ (স্টইনিস ৫২*, হ্যান্ডসকম্ব ৪৮; কুলদীপ ৩/৫৪, বিজয় শঙ্কর ২/১৫, বুমরাহ ২/২৯)।

ফল: ভারত ৮ রানে জয়ী।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here