মাত্র সাত দিনে সব শেষ স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের। চিরপ্রতিদ্বন্দি বার্সালোনার কাছে হেরে কোপা দেল রের থেকে বিদায় নিয়েছিল রিয়াল। তার তিনদিন পর আবারো বার্সার কাছে হরে লা লিগা থেকেও ছিটকে গিয়েছিল কোচ সোলারির শিষ্যরা। সবশেষ চ্যাম্পিয়ান্স লীগে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে আয়াক্সের কাছে ৪ গোল হজম করে আরো একটি শিরোপা দৌড়ে ছিটকে যায় টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা।

এমন ব্যর্থতায় স্বাভাবিক ভাবেই কোচ সান্তিয়াগো সোলারির চাকরি ছাড়ার প্রশ্ন উঠতেই পারে। তবে কোচ সোলারি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি রিয়ালের চাকরি ছাড়ছেন না। তিনি বলেন, ‘দলের এমন দুঃদিনে আমি ছেড়ে যাব না।’ কিন্তু সোলারির চাকরি যে হুমকির মুখে তা কিছুটা আঁচ কার যাচ্ছে। দলের এমন বিপর্যয়ে রিয়াল সভাপতি ফ্লেরেন্টিনো পেরেজ দারস্ত হলেন সাবেক কোচ জিনেদিন জিদানের। রিয়াল সভাপতি পেরেজ জিদানকে ফোন করে আবারো দলের দায়িত্ব নেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

এবং জিদান তা প্রত্যাখ্যান করলেও একবারে না করে দেননি। জানিয়েছেন বিষয়টি বিবেচনায় রাখবেন। এমনটাই জানিয়েছেন রিয়ালের সাবেক সভাপতি রামোন কালদেরোন। ব্রিটিশ সম্প্রচারমাধ্যম বিবিসিতে দেয়া এক সক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘সকালে জিদানকে ফোন দিয়ে রিয়ালের দায়িত্ব নেয়ার কথা বলেছেন সভাপতি পেরেজ। জিদান না করে দিয়েছে। তবে আগামী জুন পর্যন্ত তার (জিদান) ফেরার দরজা খোলা আছে।’

লসব্লাঙ্কোসদের টানা ব্যর্থতার পর দলে আরেক সাবেক কোচ হোসে মরিনহো নামও সামনে চলে এসেছে। তবে মরিনহো ব্যাপারে কালদেরোন বলেন, ‘সভাপতির প্রথম পছন্দ মরিনহো। কিন্তু মরিনহো ও জিদানের কোচে হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে বরাবরই প্রশ্ন উঠে। তারা দুই জন সম্পূর্ন ভিন্ন। এবং তাদের ফুটবল দর্শনও ভিন্ন।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here