চীনা সেনাদেরকে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ চালানোর প্রশিক্ষণ দিতে যাচ্ছে রাশিয়া। মস্কো যখন চীনকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার দ্বিতীয় চালান হস্তান্তর করতে যাচ্ছে তখন এ খবর বের হলো।

রুশ বার্তা সংস্থা ইতার-তাস জানিয়েছে, রাশিয়ার একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে চীনের অন্তত ১০০ সেনা ওই প্রশিক্ষণ নেবে।  বার্তা সংস্থাটি আরো জানিয়েছে, এস-৪০০’র দ্বিতীয় চালান চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে চীনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

২০১৪ সালে চীন চার থেকে ছয়টি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার রেজিমেন্টাল ইউনিটের অর্ডার দিয়েছিল। এজন্য চীনকে প্রায় ৩০০ কোটি ডলার খরচ করতে হচ্ছে। চীন হচ্ছে এস-৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রথম বিদেশি ক্রেতা।

চীনকে এস-৪০০’র প্রথম ইউনিটের চালান হস্তান্তর করা হয়েছে গত বছরের বসন্তে। এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সেনাদেরকে রাশিয়া প্রশিক্ষণ দিয়েছে এবং তারা সফলতার সঙ্গে এ ব্যবস্থা পরিচালনার পরীক্ষা চালিয়েছে।

তাস জানিয়েছে, এস-৪০০’র একেকটি ইউনিটে রয়েছে একটি কমান্ড পোস্ট, রাডার স্টেশন, লাঞ্চিং স্টেশন, এনার্জি ইকুইপমেন্ট এবং অন্যান্য সম্পত্তি।

এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ৪০০ কিলোমিটার বা ২৪৮ মাইল দূরের এবং ৩০ কিলোমিটার উচ্চতার লক্ষ্যবস্তুকে টার্গেট করতে পারে। এ ব্যবস্থা যুদ্ধবিমান এবং ক্রুজ ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করতে পারে। এছাড়া, ভূমি-ভিত্তিক লক্ষ্যবস্তুর বিরুদ্ধেও এস-৪০০ ব্যবহার করা যায়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here