শুক্রবার সকাল থেকে মুষলধারে বৃস্টিতে প্রথম দিনের খেলা গড়ায়নি মাঠে। ড্রেসিং রুম থেকে বেরিয়ে মাঠে আসতে পারেনি দু’দলের ক্রিকেটাররা। হয়নি টস সেদিন। দ্বিতীয় দিনটিও অলস ভাবে কাটিয়েছে ২ দল। বৃস্টির কারনে ওয়েলিংটন টেস্টে টানা দ্বিতীয় দিনের খেলা হয়েছে পরিত্যক্ত।

প্রবল বর্ষনের উপায়ন্তর না দেখে ৩টায় মাঠ পরিদর্শন করে টি ব্রেকের সময় ( বেলা ৩টা ৩০ মিনিটে ) প্রথম দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষনা করেছেন ২ আম্পায়ার। শনিবার আধঘন্টা আগে ( স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩০ মিনিট) শুরু হওয়ার কথা ছিল দ্বিতীয় দিনের ম্যাচ। তবে এই দিনটিও আক্রান্ত হয়েছে বৃস্টিতে।

স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে বৃস্টি থেমে গেলে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরুর সম্ভাবনা দেখা দেয়। ১ টা  ২৫ মিনিটে পিচ কভার খুলে ফেলা হয়। সুপার সপার দিয়ে পানি নিষ্কাশন কাজ শুরু করা হয়।  মাঠে দু’দলের খেলোয়াড়রা নেমে হালকা অনুশীলন শুরু করে। খুলে দেয়া পিচ কভারের ভেতর থেকে সবুজ পিচ বেরিয়ে আসে। কৌতুহলী বাংলাদেশ কোচ এবং ক্রিকেটাররা এমন পিচের দিকে কিছুক্ষন তাকিয়ে থাকেন।

বেলা ১ টা ৪৫ মিনিটে মাঠ পরিদর্শনে আসেন ২ আম্পায়ার। কিন্তু দুপুর ২ টা ১০ মিনিটে আবারো বৃস্টি দেয় হানা। কিছুক্ষন পর বৃস্টি থেমে গেলে স্থানীয় সময় বেলা ৩টায় মাঠ পরিদর্শন করেন ২ আম্পায়ার। দু’দল নেমে পড়ে অনুশীলনে। ট্রি ব্রেকের পর ( স্থানীয় সময় বেলা ৩ টা ৫০ মিনিট) পুনরায় বৃস্টি হানা দিনে স্থানীয় সময় বিকেল ৪ টা ৫০ মিনিটে দ্বিতীয় দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষনা করা হয়।

টানা ২ দিন ওয়েলিংটন টেস্টের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষিত হয়েছে। প্লেয়ার্স লিস্ট জমা দিতে পারেনি ২ দল। টস পর্যন্ত হয়নি।  তৃতীয় দিনেও যে খেলা গড়াবে তার নিশ্চয়তা নেই।   আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে  ওয়েলিংটনে রবিবার বজ্রবৃস্টি হবে।  সূর্য মাঝে মাঝে উঁকি দিলেও তবে আকাশে থাকবে মেঘ। মঙ্গলবার পর্যন্ত আবহাওয়া এমনই থাকবে। ফলে তৃতীয় থেকে পঞ্চম দিনেও বৈরী আবহাওয়ায় বাধাগ্রস্থ হবে ওয়েলিংটন টেস্ট, এমন পূর্বাভাসই দিচ্ছে আবহাওয়া বিভাগ। বেসিন রিজার্ভের ড্রেনেজ ভুগর্ভস্থ। পানি দ্রুত নিষ্কাশন হয় এখানে।  ওয়েলিংটন টেস্টের ভবিষ্যত এখন নির্ভর করছে প্রকৃতি এবং বেসিন রিজার্ভের ড্রেনেজের উপর।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here