মিয়ানমারে ইরানের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত মোহসেন মোহাম্মদি সেদেশের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী ইউ খিয়াও তিনের সঙ্গে সাক্ষাতে রোহিঙ্গা মুসলমানদের সমস্যা সমাধানে সহায়তার জন্য তেহরানের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন। তিনি থাইল্যান্ডে ইরানের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালনের একইসঙ্গে মিয়ানমার বিষয়ক দায়িত্বও পালন করে থাকেন।

বার্তা সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রীর সঙ্গে ইরানের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাতে দু’দেশের পদস্থ রাজনৈতিক প্রতিনিধি দলের সফর বিনিময়, রাজনৈতিক বিষয়ক যৌথ কমিটির বৈঠক এবং রোহিঙ্গা পরিস্থিতির বিষয়ে কথাবার্তা হয়েছে।

মিয়ানমারে ইরানের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত মোহসেন মোহাম্মদি বলেছেন, রোহিঙ্গা সংকট অব্যাহত থাকায় তা ইরানের জন্য উদ্বেগ ও চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং শুরু থেকেই ইরান এ সংকট সমাধানে তার সহযোগিতার কথা জানিয়েছে। তিনি বলেন, ইরান কখনোই মনে করে না রোহিঙ্গা সংকট কেবলইমাত্র মুসলমান ও বৌদ্ধদের মধ্যকার ধর্মীয় বিবাদের ফল এবং আমরা মনে করি এ সংকট শুরুর মূল কারণের দিকে নজর দেয়া উচিত।

এ সাক্ষাতে মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী বলেছেন, রাখাইন রাজ্যের সংকট অত্যন্ত জটিল এবং দারিদ্রতা, অনুন্নয়ন, সাংস্কৃতিক সংকট প্রভৃতি এ সংকটকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। তিনি রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ইরানের সহযোগিতার প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, শরণার্থী প্রত্যাবর্তন রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের মূল বিষয় এবং এ বিষয়ে বাংলাদেশ ও জাতিসঙ্ঘের সঙ্গে সমঝোতা পত্রে সই হয়েছে। কিন্তু কিছু ষড়যন্ত্র এ সংকট সমাধানের পথে বাধা হয়ে আছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here