দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের লজ্জার রেকর্ড গড়েছে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ। অলআউট হয়েছে নিজেদের ইতিহাসে সবচেয়ে কম রানে। সঙ্গে যোগ হয়েছে বিশাল হারের লজ্জাও।

শনিবার সেন্ট কিটসে ১৩৭ রানে হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগে ব্যাট করে সফররত ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে ১৮২ রানে পুঁজি গড়ে। জবাবে মাত্র ৪৫ রানে অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিক উইন্ডিজ।

ওয়েষ্ট ইন্ডিজের টি-টোয়েন্টিতে আগের সর্বনিম্ন স্কোর ছিল ৬০, গত বছর করাচিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে। সবমিলে টি-টোয়েন্টিতে এটি দ্বিতীয় সর্বনিম্ন স্কোর। ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রামে ৩৯ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল নেদারল্যান্ডস। যা এই ফরম্যাটে সর্বনিম্ন।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ৪ উইকেটে জিতেছিল ইংল্যান্ড। ফলে তিন ম্যাচের সিরিজ এক ম্যাচ হাতে থাকতেই জিতে নিল দলটি। এর আগে দুই টেস্টের সিরিজ ২-১ এ হেরেছিল ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-২ এ ড্র হয়েছিল।

টস জিতে ইংল্যান্ডকে আগে ব্যাট করতে পাঠায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। স্যাম বিলিংস ও জো রুটের ব্যাটে বড় স্কোর গড়ে সফরকারী দল। ৫.২ ওভারে মাত্র ৩২ রানে ৪ উইকেট হারিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর রুট ও বিলিংসের ৮২ রানের জুটিতে খেলায় ফেরে ইংল্যান্ড।

রুট ৪০ বলে ৭ চারে ৫৫ রান করে ফেরেন। বিলিংস ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ডেভিড উইলিকে নিয়ে যোগ করেন ৬৮  রান। ইনিংসের শেষ বলে ফেরেন বিলিংস। খেলেন ৪৭ বলে ৮৭ রানের বিধ্বংসি ইনিংস। ১০ চার ও ৩ ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান তিনি। ক্যারিবীয়দের পক্ষে সর্বাধিক ২ উইকেট নেন ফাবিয়ান অ্যালেন।

জবাবে ১১.৫ ওভারে গুটিয়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শিমরন হেটমায়ার (১০) ও কার্লোস ব্র্যাথওয়েট বাদে কেউই দুই অঙ্কের স্কোর করতে পারেনি। ক্রিস জর্ডান নিয়েছেন সর্বাধিক ৪ উইকেট। ডেভিড উইলি, আদিল রশিদ ও লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট নেন ২টি করে উইকেট।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here