ডারবানে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে কুইন্টন ডি ককের সেঞ্চুরিতে লঙ্কানদের বিপক্ষে বৃষ্টি আইনে ৭১ রানের জয় পেয়েছে প্রোটিয়ারা। এ জয়ের মাধ্যমে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতল দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ৩৩১ রান করে স্বাগতিকরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১২১ রান করে শ্রীলঙ্কা।

৩৩১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৩৫ রানেই দুই ওপেনারের উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর তৃতীয় উইকেটে ওসাদা ফারনান্দো ও কুশল মেন্ডিস ৪০ রান যোগ করেন। ১৬ ওভারে ২ উইকেটে ৭৫ রান তোলার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

বৃষ্টি শেষে খেলা পুনরায় শুরু হলে বৃষ্টি আইনে শ্রীলঙ্কার সামনে নতুন টার্গেট দাঁড়ায় ২৪ ওভারে ১৯৩ রান। অর্থাৎ ৮ ওভারে দলটির প্রয়োজন হয় ১১৮ রানের। তবে এ চাপ আর সামলাতে পারেনি লঙ্কানরা। ৫ উইকেটে ১২১ রানে থেমে যায় শ্রীলঙ্কার ইনিংস। ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির নিয়েছেন দুই উইকেট।

এর আগে কিংসমিডে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৪ রানে হ্যান্ডরিক্সের উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় উইকেটে ৯৭ রান যোগ করেন ডি কক ও অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। দলীয় ১২১ রানের সময় ব্যক্তিগত ৩৬ রানে আউট হন ডুপ্লেসিস।

এরপর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৫তম সেঞ্চুরি তুলে নেন কুইন্টন ডি কক। ভ্যান ডার ডুসেনকে সঙ্গে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়েন তিনি। দলীয় ১৮৭ রানে আউট হন ডি কক। ১৬টি চার ও দু’টি ছয়ের সাহায্যে ১২১ রান করেন তিনি। ৫০ রান করে আউট হন ডুসেন। এরপর মিলার ৪১, প্রিটোরিয়াস ৩১ ও শেষ দিকে ফ্যালুকায়ো ১৫ বলে ৩৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেললে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৩১ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ম্যাচ শেষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরির কারণে ম্যাচ সেরা হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কুইন্টন ডি কক। ১৩ মার্চ (বুধবার) পোর্ট এলিজাবেথে সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here