ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে কুয়েত মৈত্রী হলে সিল মারা বস্তাভর্তি ব্যালট পাওয়ার অভিযোগে স্থগিত থাকা ভোট শুরু হয়েছে। আজ সোমবার বেলা ১১টা ১০ মিনিট থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। এ হলে ভোট গ্রহণ চলবে বিকেল ৫টা ১০ মিনিট পর্যন্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রো-ভিসি) ড. মুহম্মদ সামাদ এ তথ্য নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, স্থগিত থাকা ভোট শুরু হয়েছে। ভোট চলবে বিকাল ৫টা ১০ মিনিট পর্যন্ত। এরপরও যদি ভোটার উপস্থিত থাকে তাহলে নির্ধারিত সময়ের পরও তাদের ভোট নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, কুয়েত মৈত্রী হলের প্রাধ্যক্ষ শবনম জাহানকে অপসারিত করা হয়েছে। অধ্যাপক মাহবুবা নাসরিনকে ভারপ্রাপ্ত প্রাধ্যক্ষ করা হয়েছে। ব্যালটে সিল মারার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজ সোমবার কুয়েত মৈত্রী হলে সিল মারা বস্তাভর্তি ব্যালট পাওয়ার অভিযোগ ওঠে। এসব ব্যালটে ছাত্রলীগের হল সংসদের প্রার্থীদের পক্ষে ভোট দেওয়া ছিল। এরপর এই হলের ভোট গ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

কুয়েত মৈত্রী হলে প্রার্থী ও ভোটাররা জানান, আমরা সকাল থেকে ব্যালটবাক্স দেখতে চাচ্ছিলাম, কিন্তু হল কর্তৃপক্ষ কোনোভাবেই রাজি হচ্ছিলেন না। হলের অডিটোরিয়ামে একটি কক্ষ আগে থেকেই বন্ধ ছিল। সকালে সেই কক্ষ থেকে প্রার্থী ও ভোটাররা এক বস্তা ব্যালট উদ্ধার করে। সেগুলোর সবই ছিল ছাত্রলীগের প্রার্থীদের পক্ষে সিলমারা। পরে প্রার্থী ও শিক্ষার্থীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে নির্বাচনি কর্মকর্তারা ভোট বন্ধ করে দেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here