মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি খুনি ব্রেনটন ট্যারান্টের গভীর আকর্ষণ রয়েছে। নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলার আগে প্রকাশিত খুনি ট্যারান্টের ইশতেহার বিশ্লেষণ করে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন বিশ্লেষকেরা। ওই ইশতেহারে সে নিজেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক হিসেবে উল্লেখ করে লিখেছে, পুনরুজ্জীবিত শ্বেতাঙ্গ পরিচয়ের প্রতীক হিসেবে আমি অবশ্যই ট্রাম্পের সমর্থক।

এছাড়া ট্রাম্পের উগ্র সমর্থক ক্যানডিস ওউনসের কাছ থেকে অনুপ্রারিত হওয়ার কথাও জানিয়েছে সে। সন্ত্রাসী ট্যারান্ট, ট্রাম্পের উগ্র সমর্থক ক্যানডিস ওউনস সম্পর্কে লিখেছে, সার্বিকভাবে যিনি আমাকে বেশি প্রভাবিত করেছেন, তিনি হচ্ছেন ক্যানডিস ওউনস। যখনই তিনি কথা বলেন, আমি বিমোহিত হয়ে যাই।

আমেরিকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মুসলিম দেশ এবং মুসলমানদের বিরুদ্ধে নানা পদক্ষেপ নিচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ইসলাম বিদ্বেষী নানা বক্তব্য ও পদক্ষেপের কারণে খোদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা বিশ্বেই মুসলমানদের বিরুদ্ধে হামলা বেড়েছে বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করেন।

নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হত্যাকাণ্ডের পূর্বাভাস দিয়ে ৭৩ পাতার ইশতেহার প্রকাশ করেছে ইসলাম বিদ্বেষী ২৮ বছর বয়সী ব্রেনটন ট্যারান্ট। তাতে মুসলমানদের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করে সে লিখেছে, মুসলমানদেরকে আমি ঘৃণা করি। যারা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে তারা নিজের রক্তের সঙ্গে প্রতারণা করেছে বলে সে দাবি করেছে।

খুনি টারান্ট তার ইশতেহারে আরও লিখেছে, আমি ২০১১ সালে নরওয়ের ওসলোতে ৭৭ জনকে হত্যাকারী অ্যান্ডারর্স ব্রেইভিকসহ অন্য হামলাকারীদের কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছি। মুসলমানসহ অন্যদেরকে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে উল্লেখ করে শেতাঙ্গদের বিজয় হবে বলে সে দাবি করেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here