সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হয়েছিল নেপাল ও বাংলাদেশ। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে স্বাগতিকদের সঙ্গে পেরে ওঠেনি বাংলার মেয়েরা। হেরেছে বাজেভাবে।

প্রতিযোগিতার ‘এ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে শহীদ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে নিজেদের মেলে ধরতে না পারায় নেপালের কাছে ৩-০ গোলের বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

ম্যাচ হেরেও গ্রুপ রানার্সআপ হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে টাইগ্রেসরা। কেননা নিজেদের আগের ম্যাচে ভুটানকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা।

ম্যাচের প্রথম পাঁচ মিনিট দেখে মনে হয়নি ফলটা নেপালের পক্ষে যাবে। এই সময়টায় প্রতিপক্ষের চেয়ে মোটামুটি গোছাল ফুটবল খেলে বাংলাদেশেই মেয়েরাই।

ষষ্ঠ মিনিটে ভুল করে বসে বাংলাদেশ। ডি-বক্সের মধ্য ভাসতে থাকা বল হেডে ক্লিয়ার করার চেষ্টা করেন দলীয় ডিফেন্ডার মাসুরা পারভিন। তবে দুর্ভাগ্যক্রমে তা জড়ায় নিজেদের জালেই।

২১তম মিনিটে আবারও ভুলের পুনরাবৃত্তি। দলীয় প্রচেষ্টায় বাংলাদেশের ডি-বক্সে বল নিয়ে আসে নেপালের মেয়েরা। তা প্রতিহত করতে এগিয়ে আসেন গোলরক্ষক। সেই সুযোগে গোলপোস্ট ফাঁকা পেয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান নেপালের সাবিত্রা।

পাঁচ মিনিট পরে ফের ডিফেন্ডারদের অবহেলায় গোল হজম করে বাংলাদেশ। ডান প্রান্ত দিয়ে নেপালের এক খেলোয়াড় আক্রমণে আসলে হেডে বিপদ মুক্ত করতে চেয়েছিলেন ডিফেন্ডার নার্গিস খাতুন। তবে তিনি ব্যর্থ হলেও গোল করতে ভুল করেননি নেপালের মাঞ্জালি কুমারী।

৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় নেপাল। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে গোল পরিশোধ করতে পারেনি বাংলাদেশ। নেপালও পারেনি ব্যবধান বাড়াতে। শেষ পর্যন্ত বড় হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে বাংলাদেশকে।

এ ম্যাচে হারের কারণে সেমিফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হতে পারে ভারত। কেননা ‘এ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল খেলবে ‘বি’ গ্রুপের রানার্সআপের বিপক্ষে। ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মালদ্বীপকে ৬-০ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনাল ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করেছে ভারত।

আগামীকাল (রবিবার) গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে তুলনামূলক দুর্বল দল শ্রীলঙ্কাকে মোকাবেলা করবে ভারত। তাই বলাই যায়, গ্রুপে সেরা হওয়ার কাজটা অনেকটা এগিয়ে রেখেছে আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারতীয়রা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here