ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর অস্ত্র আইনে সংশোধন আনার বিষয়ে সম্মত হয়েছে নিউজিল্যান্ডের মন্ত্রিসভা। সোমবার মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠকে তারা এ বিষয়ে একমত হন।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানায়, আগামী ১০ দিনের মধ্যে অস্ত্র আইন সংস্কারের প্রক্রিয়া জানানো হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন।

তিনি বলেন, “মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে বিষয়টি আমাদের কাছে স্পষ্ট যে, শুক্রবারের সন্ত্রাসী হামলা ছিল আমাদের এই উপকূলে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মসজিদে নির্বিচার গুলির ঘটনায় আমাদের অস্ত্র আইনের দুর্বলতা প্রকট হয়েছে এবং এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে হবে।

এছাড়া গুলির ঘটনায় নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর ভূমিকার বিষয়টিও পর্যালোচনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদসহ দুটি মসজিদে এক শ্বেতাঙ্গ খ্রিস্টানের গুলিতে কয়েকজন বাংলাদেশিসহ কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হন। আহত হন আরও ৪৬ জন যাদের ১২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ক্রাইস্টচার্চের ডিনস অ্যাভিনিউর আল নুর মসজিদ ও পার্শ্ববর্তী লিনউডের মসজিদে হামলা চালায় ব্রেনটন ট্যারেন্ট নামের শ্বেতাঙ্গ খ্রিস্টান সন্ত্রাসী। স্ট্রিকল্যান্ড স্ট্রিটে একটি গাড়িবোমা হামলার চেষ্টার ঘটনাও ঘটেছে।

ক্রাইস্টচার্চে হেগলি ওভাল মাঠের খুব কাছের আল নুর মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের ওপর বন্দুক হামলার ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পান বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়েরা। তখন তাদের সঙ্গে কোনো নিরাপত্তারক্ষী ছিল না।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here