নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার তদন্তে সহায়তা করতে নিজ দেশের নিউ সাউথ ওয়েলসের দুটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে গত শুক্রবারের এ ঘটনায় হামলাকারী অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্যানটন ট্যারেন্টকে গ্রেপ্তার করে হত্যা মামলায় অভিযুক্ত করেছে নিউজিল্যান্ড পুলিশ।

এক বিবৃতিতে অস্ট্রেলিয় পুলিশ বলছে, তারা সোমবার সকালে স্যান্ডি বিচ ও লরেন্স শহরের দুটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে।

পুলিশের বিবৃতিতে বলা হয়, এ তল্লাশি চালানো কার্যক্রমের প্রধান উদ্দেশ্য হলো- নিউজিল্যান্ড পুলিশের চলমান তদন্ত কার্যক্রমে সহায়তা করা। এখান থেকে পাওয়া বিভিন্ন উপাত্ত তাদের সহায়তা করতে পারে।

জানা যায়, তল্লাশি চালানো নিউ সাউথ ওয়েলসের বাড়ি দুটিতে হামলাকারী ট্যারেন্টের বেড়ে ওঠা।

এদিকে ক্রাইস্টচার্চের ‘গান সিটি’ দোকানের মালিক জানান, অভিযুক্ত হামলাকারীর কাছে চারটি বন্দুক ও গুলি বিক্রি করেছেন। তবে পুলিশের ভেরিফাইড করা অনলাইন মেইল অর্ডার’ দেখেই তা বিক্রি করেছেন বলে দাবি করেন তিনি।

ডেভিড টিপল নামের ওই বিক্রেতা এক বিবৃতিতে বলেন, তিনি ক্রয় ও বিক্রয়ের সম্পূর্ণ বিবরণী পুলিশকে দিয়েছেন। সেখানে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল বিক্রির তথ্য অন্তর্ভুক্ত নেই।

মসজিদের এ হামলার ঘটনায় তিনি ও তার দোকানের কর্মচারীরা শোকাহত ও ব্যথিত বলেও জানান বিক্রেতা টিপল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here