পানি, বিদ্যুৎ, খাবারদাবার থেকে শুরূ করে দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার্য অনেক কিছুর উপরই  ট্যাক্স বসানো হয়। কিন্তু সবচেয়ে বিচিত্র ট্যাক্স বসানো হয়েছিল ইংল্যান্ডে। সেখানে ১৫৩৫ সালে দাড়ির উপর ট্যাক্স বসিয়ে ছিলেন রাজা অষ্টম হেনরি।

যে ব্যক্তির সামাজিক অবস্থা যেরকম, সেই মতো কর ধার্য করা হত। হেনরির সেই অভিনব কর এক সময় অবশ্য বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু হেনরির পর সিংহাসনে বসা তাঁর মেয়ে রানি প্রথম এলিজাবেথও দাড়ির উপর কর বসিযেছিলেন। রানি এলিজাবেথ নিয়ম করেছিলেন, যে পুরুষ দু’ সপ্তাহের বেশি দাড়ি কাটবেন না, তাঁকেই সেই দাড়ির উপর ট্যাক্স দিতে হবে।

এই আইন এর পর ১৭০৫ সালে চালু করেছিলেন রাশিয়ার সম্রাট প্রথম পিটার।  সম্রাট পিটার এক বিশেষ টোকেনের ব্যবস্থা করেছিলেন। সেই রুপোর টোকেনের এক পাশে ছিল একটি ঈগলের ছবি।

অন্য পাশে দাড়িওলা একজন মানুষের মুখের নীচের দিক। সেই টোকেনে লেখা থাকত, ‘দাড়ির ট্যাক্স নেয়া হল’ এবং ‘দাড়ি হল এক প্রকারের বোঝা’।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here