বিনোদনের খেলা ক্রিকেটে দর্শক মাঠ মুখি না হলে তাতে খুব একটা প্রাণ খুঁজে পাওয়া যায় না, ফিকে হয়ে যায় আয়োজনের সিংহভাগই। আসন্ন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) আরও বেশি দর্শক টানতে তাদের চাহিদার কথা বিবেচনাতে এনে এবার টুর্নামেন্টের ফ্র‍্যাঞ্চাইজি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু তাদের ঘরের মাঠে ‘ডগ আউট’ রাখার বিশেষ পরিকল্পনা করেছে।

দর্শক সুবিধার কথা মাথায় রেখে বিশ্বের অনেক ক্রিকেট স্টেডিয়ামেই এখন করা হয় বাড়তি আয়োজন। কোথাও সুইমিংপুল, কোথাও স্টেডিমায়ের সাথেই বাচ্চাদের জন্য খেলাধুলার ব্যবস্থা রাখা তো আবার কোথাও ‘গ্রিন গ্যালারি’। এবার তাতে নতুন মাত্রা যোগ করছে আইপিএলে ভিরাট কোহলির দল, টুর্নামেন্টটির আসন্ন মৌসুমে ক্রিকেট মাঠে ‘ডগ আউট’ আমদানী করছে ব্যাঙ্গালুরু কর্তৃপক্ষ।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের কল্যাণেই ক্রিকেট মাঠে ‘ডাগ আউট’ এর আগমন ঘটেছিল। কুঁড়ি ওভারি ক্রিকেটের দ্রুততার সঙ্গে তাল মেলাতে ড্রেসিংরুমের বদলে বাইন্ডারি লাইনের পাশে ডাগ আউটে ক্রিকেটারদের বসার ব্যবস্থা হয়। এবার এই বছর আইপিএল চলার সময়ে চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে আরসিবির হোম ম্যাচে পোষা প্রাণী নিয়ে মাঠে এসে খেলা দেখার সুযোগ পাবেন দর্শকরা। তার জন্য আলাদা একটি স্ট্যান্ড রাখা হচ্ছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘ডগ আউট’।

এই প্রসঙ্গে আরসিবির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা সব সময় সমর্থক এবং তাঁদের প্রিয়জনের কথা ভাবি। আমরা জানি কিছু পরিবারে পোষ্যকে তাদের পরিবারের সদস্য হিসেবেই ধরা হয়। তাই তাদেরও মাঠে আনার জন্য এই ব্যবস্থা।’

এদিকে আইপিএলের অধরা শিরোপার নেশাতে মরিয়া আরসিবি। এ বার ইতিহাস বদলে দিতে চান দলটির অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। ২০০৮ থেকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুতে কোহলি, নেতৃত্ব দিচ্ছেন ২০১৩ সাল থেকে। এত বছর ধরে চ্যাম্পিয়ন না হওয়া সত্ত্বেও সমর্থকেরা যে তাদের সমর্থন দেওয়া থেকে সরে যাননি, তার জন্য অধিনায়ক ধন্যবাদ জানিয়েছেন দলটির সমর্থকদের।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here