ভেনেজুয়েলার মতো দলের সঙ্গেও বড় ব্যবধানে হার। রাগটা তাই হতেই পারে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনার। চটেছেন বেজায়। রীতিমতো তুলোধুনো করে ছেড়েছেন লিওনেল মেসিদের। এমনকি বর্তমান দলটি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের জার্সি পড়ার যোগ্যতাও রাখেন না বলে এক হাত নিয়েছেন ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ জয়ী নায়ক।

ওয়ান্দা মেত্রোপলিতনে শুক্রবার ৩-১ গোলে ভেনেজুয়েলার কাছে বিধ্বস্ত হয় আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচ দিয়ে প্রায় আট মাস পর জাতীয় দলে ফিরেছিলেন মেসি। কিন্তু তারপরও এমন করুণ দশা দলের। যদিও মেসি নিজের চেনা ছন্দেই ছিলেন। বরাবরের মতো পাননি সতীর্থদের সমর্থন। তবে তারপরও তাদের সমালোচনা করতে ছাড়েননি ম্যারাডোনা।

সে ম্যাচ সম্পর্কে জানতে চাইলে ক্ষিপ্ত ম্যারাডোনা বললেন, ‘আমি আর্জেন্টিনার খেলা দেখি না, আমি কোন হরর সিনেমা পছন্দ করি না। জাতীয় দলে যেসকল অদক্ষ লোক দায়িত্বে আছে, তারা ভেবেছে তারা ভেনেজুয়েলাকে হারিয়ে দেবে? তারা (ভেনেজুয়েলা) ভালো দল। আমি আর্জেন্টিনার খেলোয়াড় ও সমর্থকদের জন্য দুঃখ অনুভব করছি।’

‘আর্জেন্টিনা দল জানালা দিয়ে ঢোকার চেষ্টা করেছে, দরজাও খুঁজে পায়নি। তারা প্রতারণা করেছে, মানুষদের কাছে মিথ্যে বলেছে। আমি দুঃখিত কিন্তু তারা খেলা জিততে পারবে না।’ – যোগ করে আরও  বলেন ম্যারাডোনা।

২০১৭ সাল থেকে আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করা ক্লাদিও তাপিয়াকেও ছাড় দেননি ম্যারাডোনা, ‘এটা আমাকে কষ্ট দিয়েছে কারণ আমি আর্জেন্টিনাকে অন্তঃস্থল থেকে অনুভব করি। আমি (ওস্কার) রুগেরি, (গ্যাব্রিয়েল) বাতিস্তুতা, (ক্লাদিও) ক্যানিজিয়ার মতো খেলোয়াড়দের জেনারেশন… বর্তমান দল জাতীয় দলের জার্সি প্রাপ্য নয়। (ক্লাদিও) তাপিয়ার কোন ধারণা নেই, সে কি করছে।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here