রাজধানীতে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে চালু হচ্ছে চক্রাকার বাস সার্ভিস। প্রাথমিক পর্যায়ে আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটে এবং  বিমানবন্দর থেকে প্রগতি সরণি হয়ে মতিঝিল ‍রুটে চারটি ডাবল ডেকার বিআরটিসি বাস চালু হচ্ছে।

আজ বুধবার ১২টার দিকে রাজধানীর কলাবাগান মাঠ থেকে আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটে চক্রাকার বাস সার্ভিসের উদ্বোধন করেন ঢাকার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন।

এসময় উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন। এরপর বিমানবন্দর স্টেশনের সামনে থেকে (পুলিশ বক্সের সামনে) চক্রাকার বাসের অন্য সার্ভিসটি উদ্বোধন করবেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।

আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটে চক্রাকার বাস সার্ভিস উদ্বোধন শেষে মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ‘রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফেরানো ও যানজট নিরসনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় যে বর্ধিত কমিটি করা হয়েছে, সেই কমিটি নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রাথমিক পর্যায়ে ধানমন্ডি এলাকায় আমরা এ বাস সার্ভিস চালু করলাম। আমরা বিশ্বাস করি, এ এলাকার বাসিন্দা এবং যারা এলাকায় আসা-যাওয়া করেন তাদের জন্য একটি স্বস্তির বিষয় হবে এ চক্রাকার বাস সার্ভিস।

তিনি জানান,  এ বাস সার্ভিসে বিআরটিসির ২০-২৫টি বাস চলাচল করবে। বাসগুলো মোট ৩৬টি স্পটে থামবে এবং নির্ধারিত সময়ের জন্য অপেক্ষা করবে। এসব কাউন্টারে পাঁচ মিনিট পর পর একটি করে বাস আসবে। এছাড়া এ এলাকায় আর অন্য কোনো যাত্রীবাহী বাস চলাচল করবে না। বাসের সর্বনিম্ন ভাড়া হবে ১০ টাকা, এবং দূরত্বভেদে ২০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩০ টাকা ভাড়ায় এ সার্ভিস নিতে পারবেন।

বাসগুলো দুই দরজা বিশিষ্ট হবে। একই সময় সামনে দিয়ে যাত্রীরা উঠবেন এবং পিছনের রাস্তা দিয়ে নামবেন। নির্দিষ্ট কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করে লাইনে দাঁড়িয়ে বাসে উঠবেন যাত্রী। ৫/১০ মিনিট পর পর বাস আসবে। চক্রাকার বাস চলাচল করায় একই স্থানে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার প্রয়োজন পড়বে না।

রুটগুলো হচ্ছে-

আজিমপুর-নিউমার্কেট-সায়েন্সল্যাব-ধানমন্ডি ২নং রোড- সাত মসজিদ রোড-ধানমন্ডি ২৭নং রোড – সোবহানবাগ– রাসেল স্কয়ার – কলাবাগান – ৬ নং রোড মোড় – ৩ নং রোড – সায়েন্সল্যাব –নিউ মার্কেট-আজিমপুর –পলাশী-নীলক্ষেত-কাঁটাবন-বাটা ক্রসিং- সায়েন্সল্যাব– ২নং রোড – সাত মসজিদ রোড।

সোবহানবাগ-রাসেল স্কয়ার – কলাবাগান – ৬নং রোড ক্রসিং – ৩নং রোড ক্রসিং – সায়েন্সল্যাব – বাটাক্রসিং – কাঁটাবন – নীলক্ষেত-পলাশী-আজিমপুর-নিউমার্কেট-সায়েন্সল্যাব-৩নং রোড-৬নং রোড ক্রসিং– কলাবাগান-সোবহানবাগ-২৭নং রোড পূর্ব মাথা – ২৭নং রোড পশ্চিম মাথা – সাত মসজিদ রোড – বিজিবি- ২নং রোড – ৩নং রোড ইউটার্ন – সায়েন্সল্যাব –বাটা ক্রসিং– কাঁটাবন –নীলক্ষেত-পলাশী-আজিমপুর-নিউমার্কেট।

স্টপেজগুলো হচ্ছে-

কাঁটাবন-নীলক্ষেত সড়কে এলইডি সাইনের সামনে-বিপরীতে মিরপুর রোডে নিউমার্কেট-সায়েন্সল্যাব রুটে নিউমার্কেট বাস-বে এবং সায়েন্সল্যাব-নিউমার্কেট রুটে বলাকা সিনেমা হলের সামনে, মিরপুর রোডে ঢাকা কলেজ-সায়েন্সল্যাব রুটে টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এবং সায়েন্সল্যাব-ঢাকা কলেজ রুটে জনতা ব্যাংক, ধানমন্ডি ২নং রোডে পপুলারের পশ্চিমে এবং সিটি কলেজের পশ্চিমে, সাত মসজিদ রোডে (বিজিবি গেটের পাশে) ব্যাংক এশিয়ার সামনে, সীমান্ত ব্যাংক যাত্রী ছাউনি, সাত মসজিদ রোডে ইউল্যাবের সামনে, মেডিনোভার সামনে, শংকর বাস স্ট্যান্ড, কবি নজরুল ইন্সটিটিউট ইন্টারসেকশন (জেনেটিক প্লাজার সামনে ও বিপরীতে), কলাবাগান মাঠের বিপরীতে ও পাশে পলাশী মোড় ও আজিমপুর মোড়।

ডিটিসিএর চেয়ারম্যান খন্দকার রাকিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিআরটিসি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান, বিআরটিএ চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন ভুইয়াসহ অনেকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here