ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে বড় হারের লজ্জা নিয়ে মাঠে নামা আর্জেন্টিনাকে পেয়ে বসেছিল আরো একটি পরাজয়ের ভয়। শেষ মুহূর্তে এমন শঙ্কা কাটিয়ে মরক্কোর বিপক্ষে জয়ের আনন্দে ভাসে দুইবারের চ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার রাতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচটিতে ১-০ গোলের জয় পায় আর্জেন্টিনা। একমাত্র গোলটি করেন বদলি নামা ফরোয়ার্ড আনহেল কোররেয়া।

মাদ্রিদে গত শুক্রবার প্রীতি ম্যাচে ভেনেজুয়েলার কাছে ৩-১ হারে তারা। ম্যাচটিতে চোট পাওয়ায় মরক্কোর বিপক্ষে ছিলেন না আর্জেন্টিনা দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় মেসি। আগে থেকেই দলে ছিলেন না সের্হিও আগুয়েরো ও আনহেল দি মারিয়ার মতো খেলোয়াড়রা।

প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনা-মরক্কো বেশ এলোমেলো ফুটবল খেলে। যে কারণে দুই দলই সমান ১৪টি করে ফাউল করে। তবে বল দখলে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা। সে সুযোগে ১১তম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার দারুন সুযোগ পেয়েছিল দলটি। কিন্তু  বেলহান্ডার বাড়ানো বল দুর্বল শটে গোলরক্ষকের হাতে তুলে দেন বোতায়িব।

এদিকে ম্যাচের ৩১তম মিনিটে ভাগ্য সঙ্গে থাকলে এগিয়ে যেতে পারতো আর্জেন্টিনা। কিন্তু হের্মান পেস্সেইয়ার ফ্রি কিক প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে অল্পের জন্য পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

বিরতির আগে যোগ করা সময়ে ভলিতে লক্ষ্যভেদের চেষ্টা করেছিলেন গনসালো মার্তিনেস; কিন্তু  এই ফরোয়ার্ডের শট জাল খুঁজে পায়নি। যে কারণে হতাশ হয়েই প্রথমার্ধ শেষ করতে হয় আর্জেন্টিনার।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই অবশ্য খেলার ধারায় পরিবর্তন আনে আর্জেন্টিনা। সে সুবাদে ৭৯তম মিনিটে দিবালাকে তুলে রিয়াল বেতিসের জিওভানি লো সেলসোকে নামান আর্জেন্টিনা কোচ। তাতে ভাগ্যও পাল্টে যায় আকাশি-নীল জার্সিধারীদের। কেননা তখনই মাতিয়াস সুয়ারেজের ছোট পাস ধরে বেশ খানিকটা এগিয়ে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন বদলি নামা কোররেয়া। এরপর ম্যাচে ফিরতে বাকি সময়ে জোর চেষ্টায় চালিয়েছিল মরক্কো। কিন্তু অতিথিদের জমাট রক্ষণ কিছুতেই ভাঙতে পারেনি তারা। আর তাতে কষ্টের জয়ে মাঠ ছাড়ে মেসিহীন আর্জেন্টিনা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here