রাজধানীর বনানীর এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলঙ্কান নাগরিকসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে অন্তত ১৯ জনে। যদিও প্রথমে এতে নিহতের সংখ্যা ২১ বলে জানানো হয়েছিল। তাছাড়া বর্তমানে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন আরও কমপক্ষে ৭০ জন।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) রাতে ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড প্ল্যানিং) সিদ্দিক জুলফিকার আহমেদ গণমাধ্যমে হতাহতের সর্বশেষ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে আনা বনানীর অগ্নিকাণ্ডের নিহত ৭ জনের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনের লাশ শনাক্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জের জহিরুল হকের ছেলে ফজলে রাব্বি (২৭), লালমনিরহাট পাটগ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে আনজির আবির (২৪), যশোর কোতোয়ালির মুজাহিদুল ইসলামের মেয়ে শেখ জারিন তাসনিম বৃষ্টি (২৭), পাবনা আতাইকুলার আইয়ুব আলীর ছেলে আমির হোসেন রাব্বি (২৯), শরিয়তপুরের পালং উপজেলার মৃত আবদুল কাদির মির্জার ছেলে মির্জা আতিকুর রহমান (৪৪), নওগাঁ সদর উপজেলার মন্সুর মণ্ডলের ছেলে মঞ্জুর হাসান মণ্ডল (৩৫) ও ইকতিয়ার হোসেন। তারা সবাই ওই ভবনের বিভিন্ন তলায় চাকরী করতেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here