দখলদার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে গাজা উপত্যকার সীমান্তবর্তী এলাকায় বিক্ষোভ কর্মসূচী পালনের সময় ফিলিস্তিনিদের ওপর গুলি চালিয়েছে ইসরায়েলি স্নাইপাররা। এতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চার ফিলিস্তিনির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

শনিবারের (৩০ মার্চ) এ হামলায় আহত হয়েছেন আরও কমপক্ষে ৪০ বিক্ষোভকারী। রবিবার (৩১ মার্চ) গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যের বরাতে করা প্রতিবেদনে এ হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী জানায়, প্রথমে গাজা ভূখণ্ড থেকে ইসরায়েলে পাঁচটি রকেট হামলা চালানো হয়। পরে পাল্টা জবাবে ট্যাংক হামলা চালায় ইসরায়েল। এই রকেট কিংবা পরবর্তীতে চালানো ট্যাংক হামলায় এখনো কেউ হতাহত হয়নি। তবে প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ইসরায়েলি ট্যাংকগুলো গাজার মধ্যাঞ্চলে ও পূর্বাঞ্চলে হামাসের পোস্ট লক্ষ্য করে হামলাটি চালায়। আর এতেই এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

এর আগে গত বছরের এই দিনে গাজা ও ইসরায়েল সীমান্তে এক রক্তক্ষয়ী বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ শুরু হয়। শনিবার এর এক বছর পূর্তি উপলক্ষে দিবসটি উদযাপনে গাজার হাজার হাজার বাসিন্দা সীমান্তে এসে জড়ো হন। আর এ সময় বিক্ষুব্ধ ফিলিস্তিনিদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালায় ইসরায়েলি স্নাইপাররা।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দাবি, ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে এখন পর্যন্ত চার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে বিক্ষোভের সময় একজন এবং রাতে ১৭ বছর বয়সী তিন কিশোরের মৃত্যু হয়।

তবে ব্যাপক হতাহতের আশঙ্কা করা হলেও গত বছরের ১৪ মের মতো বড় বিক্ষোভ ও ভয়াবহ রক্তপাত হয়নি। সেদিনের সংঘর্ষে অন্তত ৬০ জনের বেশি ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়। তখন মূলত জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদ স্বরূপ সেই বিক্ষোভটি অনুষ্ঠিত হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here