শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষা ও গবেষণাবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, রাজনীতি করতে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্য শিক্ষা, গবেষণা ও উচ্চতর জ্ঞানার্জনের পরিবেশ যাতে কোনোভাবে বিঘ্নিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এজন্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক সৃষ্টি করতে হবে।

রবিবার চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা রাজনীতি করি। এটা সমাজের বাইরের কোনো বিষয় নয়। সমাজের প্রতিটি কাজ, বলতে গেলে সবকিছুই রাজনীতির মধ্যে। কাজেই রাজনীতির বাইরে কিছু নেই। কিন্তু সেই রাজনীতিটা হতে হবে গঠনমূলক। হতে হবে আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পৃক্ত। সেটি যেন কখনই কোনো অপরাজনীতির কবলে না পড়ে।’

সিভাসু’র উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

মতবিনিময় সভায় শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা উপমন্ত্রী ও সিভাসু উপাচার্য সিভাসুর শিক্ষাকার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, সিভাসু পৃথিবীর অনেক স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে শিক্ষা ও গবেষণা কর্ম বিনিময় করছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও মালয়েশিয়ার শিক্ষার্থীরা এখানে এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামে পড়তে আসছে। সিভাসু’র শিক্ষার্থীরাও সেখানে পড়তে যাচ্ছে। এসব কর্মকাণ্ড সত্যিই প্রশংসনীয়।

শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, যে অপরাজনীতি ও অপসংস্কৃতিকে আমরা বাংলাদেশ থেকে বিদায় দিয়েছি তা যেন কোনোভাবে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে আবারও দানা না বাঁধে। এজন্য সুষ্ঠু সাংস্কৃতিক চর্চা এবং বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শ চর্চার বিষয়ে সকলকে সচেতন হতে হবে।

তিনি বলেন, সিভাসু সারা বিশ্বে সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। প্রাণীসম্পদ ও কৃষির বিকাশে এ বিশ্ববিদ্যালয় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

এর আগে শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, অ্যানাটমি মিউজিয়াম ও ফিশ মিউজিয়াম এবং ল্যাবরেটরি পরিদর্শন করে সিভাসুর শিক্ষা ও গবেষণা উপযোগী পরিবেশ দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here