মেজাজ হারিয়ে রীতি ভঙ্গ করে মাঠে ঢুকে পড়লেন ‘ক্যাপ্টেন কুল’ খ্যাত চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায় মাহেন্দ্র সিং ধোনি। আর তার জন্য শাস্তিও পেতে হলো তাকে। গুণতে হল জরিমানা। কিন্তু ধোনি গুরু পাপে লঘু দণ্ড পেলেন কিনা- এ নিয়েও গুঞ্জন উঠেছে।

আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে ম্যাচের শেষ ওভারে ‘নো বল’ বিতর্কে মাঠে ঢুকে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়ায় শাস্তিস্বরূপ ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা ধার্য করা হয়েছে ধোনিকে। টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুসারে ‘লেভেল ২’ ধারায় অভিযুক্ত হন ধোনি।

রাজস্থান রয়্যালসের দেয়া ১৫২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২৪ রানেই ৪ উইকেট হারায় ধোনির দল। সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন ধোনি ও অম্বাতি রায়ডু। পঞ্চম উইকেটে ৯৫ রান যোগ করে নাটকীয় জয়ের মঞ্চ গড়ে তোলেন তারা।

৪৭ বলে ৫৭ রান করে রায়াডু আউট হলে এক প্রান্তে এক লড়ছিলেন ধোনি। শেষ ওভারে চেন্নাইয়ের প্রয়োজন ছিল ১৮ রান। বেন স্টোকসের করা সেই ওভারের তৃতীয় বলে ৪৩ বলে ৪৮ রান করে আউট হন ধোনি।

এসময় শেষ তিন বলে দরকার ৮ রান। স্ট্রাইকে মিচেল স্যান্টনার, অন্য প্রান্তে রবীন্দ্র জাদেজা। স্টোকসের চতুর্থ ডেলিভারিটি ছিল ফুল টস। প্রায় বুক সমান উচ্চতার জন্য প্রথমে ‘নো বল’ ডেকেছিলেন আম্পায়ার উলহাস গান্ধে। কিন্তু লেগ আম্পায়ার সিদ্ধান্তটি বাতিল করলে ব্যাটসম্যানরা আবেদন জানান। সিদ্ধান্ত যখন অটল তখন ডাগআউট থেকে সোজা মাঠে ঢুকে পড়েন ধোনি। শুরু করেন আম্পায়ারদের সঙ্গে জোর বিকর্ত।

যদি তাতে লাভ হয়নি ধোনির। তবে কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকার পর শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে জয় এনে দেন সান্টনার। চেন্নাই ম্যাচটি জিতে নেয় ৪ উইকেটে।

কিন্তু ম্যাচ শেষে ক্রিকেট দুনিয়ায় ধোনির এমন আচরণ নিয়ে বিতর্কের ঝড় বলে যায়। কারণ, যাকে ‘ক্যাপ্টেন কুল’ বলা হয় সেই ধোনি এতটা ‘হট’ মেজাজী আচরণ করবেন তা কারও কাছেই প্রত্যাশিত নয়।

এ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক তারকা মার্ক ওয়াহ টুইটে ধোনিকে ধুয়ে দিয়েছেন। মার্ক ওয়াহ লিখেছেন, ‘অধিনায়কের চাপ থাকবেই। তাই বলে খেলার স্পিরিট নষ্ট করা অন্যায়। অশ্বিনের মানকাডিং বিতর্কের পর ধোনির মাঠে ঢুকে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক নিশ্চিতভাবেই অনুচিত।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here