নবাগতা থেকে শুরু করে বর্তমান প্রজন্মের সবচেয়ে শক্তিশালী অভিনেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন আলিয়া ভাট। তাও মাত্র সাত বছরে! তার স্বপ্নের ডানা খুঁজছে আরও ব্যপ্ত আকাশ।

অভিনেত্রীর স্বপ্ন এখন হলিউডে কাজ করে বিশ্বব্যাপী সিনে জগতে নিজের দাপট প্রতিষ্ঠা। আলিয়া জানিয়েছেন, ভালো কাজের সুযোগ পেলে হলিউডে কাজ করতে আগ্রহী তিনি।

এসএস রাজমৌলির আরআরআর সিনেমায় খুব শীঘ্রই তেলুগু সিনেমাতে অভিনয়ে পা রাখবেন ২৬ বছর বয়সী এই অভিনেতা। আলিয়া জানেন, নতুন শিল্পে প্রবেশ করা সবসময়ই কঠিন কাজ।

আলিয়া বলেন, “আমি আশা করি, কোনওদিন হলিউডে কাজ করতে যেতে পারব। এটি সম্পূর্ণ নতুন শিল্পে প্রবেশের মতো এবং তা মোটেও সহজ নয়। আমাকে হাতে আরও অনেকটা সময় নিয়ে পুরোটা করতে হবে।”

অভিনেত্রী আলিয়া বর্তমানে তার পরবর্তী সিনেমা কলঙ্কের প্রচারে ব্যস্ত। তিনি তার প্রেমিক রণবীর কাপুরের বিপরীতে ব্রহ্মাস্ত্রেও কাজ করছেন এবং সঞ্জয় লীলা বানসালীর ইনশাল্লাহ’তে সালমান খানের সঙ্গে দেখা যাবে তাকে।

বক্স অফিসে ২০১৮ সালে বড় উপার্জন করে এবং সমালোচকদের প্রশংসা কেড়ে নেয় আলিয়া ভাটের রাজি। আলিয়া বলেন, একজন শিল্পী হিসাবে তাকে চ্যালেঞ্জ করে এমন ভূমিকাই বেছে নেন তিনি।

আলিয়া বলেন, “আমি যে সমস্ত চরিত্রগুলিকে তুলে ধরেছি তা কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং। আমি এই ধরণের কাজকেই আমার লক্ষ্য করছি। এটাই আমার দৃষ্টিভঙ্গি… আমার পছন্দগুলি স্বতঃস্ফূর্ত। এটা আমার অন্তর থেকে আসে। যখন আমি কোনও গল্পের স্ক্রিপ্ট শুনি এবং যদি আমার পছন্দ হয়, আমি সেটা করি।”

তিনি আরও জানান যে, তিনি কখনও কল্পনা করেননি যে একটা সময়ে তিনি এতখানি বিখ্যাত হবেন, তবে সর্বদাই বহুমুখী অভিনেতা হিসাবে পরিচিত হতে চেয়েছিলেন। আলিয়া বলেন, “আমি সর্বদা আশা করেছি বড় কিছু করার এবং বড় স্বপ্নই দেখেছি।”

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here