ইরানি সেনাবাহিনীর পদাতিক বাহিনীর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কিওমারস হাইদারি বলেছেন, তার বাহিনী নতুন সমরাস্ত্র উন্মোচন করবে। বৃহস্পতিবার ইরানের জাতীয় সেনাবাহিনী দিবসের কুচকাওয়াজে এ সব সমরাস্ত্র প্রদর্শন করা হবে।

তেহরানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় এ কথা বলেন জেনারেল হাইদারি। এ সব সমরাস্ত্রের মধ্যে সাঁজোয়া গাড়ি, সাঁজোয়া গাড়ি বিধ্বংসী অস্ত্র, চালকহীন বিমান এবং ইলেক্ট্রনিক যুদ্ধের সরঞ্জাম রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

এ ছাড়া, কুচকাওয়াজে ইরানি সেনাবাহিনীর খাতাম আল-আম্বিয়া বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটি এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি নিরেট জ্বালানি চালিত এবং ঊর্ধ্বাকাশ দিয়ে গমনে সক্ষম সাইয়াদ সাইয়াদ ৩ ক্ষেপণাস্ত্রও  প্রদর্শন করা হবে। ফার্সিতে ‘সাইয়াদ’ শব্দের মানে শিকারি। পাশাপাশি স্বল্প এবং দূরপাল্লার রাডার এবং ইলেক্ট্রনিক যুদ্ধের ব্যবস্থাও প্রদর্শনীতে ঠাঁই পাবে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবারের কুচকাওয়াজে ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে নির্মিত সায়েক, রা’দ এবং আজারখেশ যুদ্ধবিমানও অংশ গ্রহণ করবে এবং উড়ন্ত অবস্থায় বিমানে জ্বালানি ভরা হবে।

তিনি ঘোষণা করেন, সাঁজোয়া যান, সাঁজোয়া যান বিধ্বংসী ব্যবস্থা, গোলন্দাজ সরঞ্জাম, চালকহীন বিমান এবং হেলিকপ্টার নির্মাণ প্রযুক্তিতে পুরোপুরি স্বনির্ভরতা অর্জন করেছে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরান।#

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here