আজিঙ্কা রাহানেকে বদলিয়ে নিজেদের নবম ম্যাচে অধিনায়কত্বের ভার দেওয়া হয় স্টিভ স্মিথকে। দায়িত্ব নিয়ে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন রাজস্থান রয়েলসের নতুন দলপতি স্মিথ। রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে ৫ বল আর ৫ উইকেট হাতে রেখে হারিয়েছে রাজস্থান। এটি তাদের তৃতীয় জয়। আর ১০ ম্যাচ খেলা মুম্বাইয়ের এটি চতুর্থ পরাজয়।

আইপিএলের ৩৬তম ম্যাচে জয়পুরে মুখোমুখি হয় রাজস্থান-মুম্বাই। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে মুম্বাই ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৬১ রান। জবাবে, ১৯.১ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় রাজস্থান। ম্যাচ সেরা হন রাজস্থানের দলপতি স্মিথ।

 মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিং বেছে নেয় রাজস্থান। আগে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১৬১ রান করে মুম্বাই। জবাবে ৫ বল হাতে থাকতেই জয় তুলে নেয় রাজস্থান।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আজিঙ্কা রাহানে ও সাঞ্জু স্যামসন উদ্বোধনী জুটিতে যোগ করেন ৩৯ রান। রাহানে ১২ রান করে ফেরেন। এরপর স্যামসনের সঙ্গে জুটি বাঁধেন স্টিভ স্মিথ। শুরু থেকেই দারুণ খেলতে থাকেন তিনি। বল টেম্পারিংয়ের নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর এই প্রথম কোনো দলের নেতৃত্ব পেয়েছেন স্মিথ।

অষ্টম ওভারে দুই উইকেট হারায় রাজস্থান। স্যামসন ৩৫ ও বেন স্টোকস ০ করে ফেরেন। তবে চতুর্থ উইকেটে স্মিথকে দারুণ সঙ্গ দেন ১৭ বছর বয়সী রিয়ান পরাগ। ২৯ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৪৩ রান করে ফেরেন তিনি। স্মিথ দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন। ৪৮ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫৯ রান করেন তিনি। মুম্বাইয়ের পক্ষে রাহুল চাহার সর্বাধিক ৩ উইকেট নিয়েছেন।

এর আগে কুইন্টন ডি ককের ৬৫ রানে ভর করে লড়ার পুঁজি গড়ে মুম্বাই। ৪৭ বলে ২ ছক্কায় ও ৬ চার হাঁকিয়েছেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৪ রান এসেছে সূর্য কুমার যাদবে ব্যাট থেকে। রাজস্থানের পক্ষে সর্বাধিক ২ উইকেট নেন শ্রেয়াস গোপাল। ম্যাচসেরা হয়েছেন স্টিভ স্মিথ।

৯ ম্যাচে ৩ জয়ে ৬ পয়েন্ট রাজস্থানের। পয়েন্ট টেবিলের সাতে তিনি। আর চতুর্থ হারের স্বাদ পাওয়া মুম্বাইয় ১০ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here